ব্যবসায়ীর কাছে দুই লাখ টাকা দাবি পুলিশ কর্মকর্তার

প্রকাশ: ২১ অক্টোবর ২০১৯      

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

রূপগঞ্জ থানার এক এএসআইর বিরুদ্ধে বিনা অপরাধে এক ব্যবসায়ীকে আটকের পর দুই লাখ টাকা দাবির অভিযোগ উঠেছে। দাবিকৃত টাকা না দিলে ব্যবসায়ীকে ইয়াবা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দেন ওই এএসআই। রোববার দুপুরে উপজেলার সাওঘাট এলাকায় ঘটে এ ঘটনা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগী পরিবার জানায়, সাওঘাট এলাকার ওষুধ ব্যবসায়ী জসিম রোববার দুপুরে বাড়িতে বাবা আলী আশরাফ ও স্ত্রী খাদিজা বেগমকে সঙ্গে নিয়ে খাবার খাচ্ছিলেন। এ সময় রূপগঞ্জ থানার এএসআই মিজানসহ বেশ কয়েকজন পুলিশের পোশাক ছাড়াই ঘরে প্রবেশ করে। পরে পুলিশের সোর্স রাব্বির হাতে থাকা হ্যান্ডকাফ জসিমের হাতে পরিয়ে সিএনজিতে উঠিয়ে নেয়। প্রতিবাদ করতে গেলে জসিমের বাবা আলী আশরাফকেও হ্যান্ডকাফ পরানোর চেষ্টা চালায়। পরে কর্ণগোপ এলাকার একটি সিএনজি পাম্পে নিয়ে গিয়ে জসিমের ব্যবহূত মোবাইল ফোন থেকে তার স্ত্রী খাদিজাকে আসতে বলা হয়। পরে খাদিজা ওই সিএনজি পাম্পে গেলে তার কাছে এএসআই মিজান ও সোর্স রাব্বি দুই লাখ টাকা দাবি করে। এ সময় পরিবারের লোকজন জসিমের অপরাধ জানতে চাইলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। একপর্যায়ে এএসআই মিজান, সোর্স রাব্বিসহ পুলিশ কোনো উত্তর না দিয়ে জানায়, দাবিকৃত দুই লাখ টাকা না দেওয়া হলে জসিমকে ইয়াবা দিয়ে মামলা দেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত এএসআই মিজান বলেন, 'ভাই এই বিষয়টি নিয়ে আপনারা আর ঘাঁটাঘাঁটি কইরেন না। আর লেইখেন্না।'

রূপগঞ্জ থানার ওসি মাহমুদুল হাসান বলেন, কোনো নিরীহ মানুষকে হয়রানি করা হবে না। এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে থাকলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।