কমিশন পরিবর্তন করতে ৩১৭ আইনজীবীর আবেদন

প্রকাশ: ১৫ জানুয়ারি ২০২০

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে সংকট দেখা দিয়েছে। বিএনপি ও আওয়ামী লীগপন্থি আইনজীবীদের একটি অংশ বারের নির্বাচনের জন্য গঠিত নির্বাচন কমিশন পরিবর্তনের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে আসছে। এরই মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশন পরিবর্তনের দাবি জানিয়ে ৩১৭ আইনজীবীর স্বাক্ষরে জেলা ও দায়রা জজ আনিসুর রহমান এবং আইনজীবী সমিতির প্রশাসনিক কর্মকর্তা সাইফুজ্জামান পৃথকভাবে আবেদন জমা দেন।

এদিকে, জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন মাত্র ১৫ দিন বাকি থাকলেও কমিশন নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার জেলা আইনজীবী সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য সিনিয়র আইনজীবী আকতার হোসেনকে চেয়ারম্যান করে পাঁচ সদস্যের কমিটি ঘোষণার আগেই উপস্থিত সাধারণ সদস্যরা এর বিরোধিতা শুরু করেন। ওই সময় সাধারণ সভা শেষ না করেই সভাস্থল ত্যাগ করে কার্যকরী কমিটি। এর পর থেকেই আওয়ামী লীগের একাংশ ও বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা নির্বাচন কমিশন পরিবর্তনের দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন।

এদিকে, গতকাল নির্বাচন কমিশন পরিবর্তনের দাবিতে ৩১৭ আইনজীবীর লিখিত আবেদন জমা দেওয়ার পর বারের নির্বাচন নিয়ে নতুনভাবে হিসাব-নিকাশ শুরু হয়েছে।

বারের সাবেক সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, এ কমিশন একটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠীর কাছে নতজানু। তাই আমরা এর পরিবর্তন দাবি করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও বারের আগামী নির্বাচনে সভাপতি প্রার্থী আনিসুর রহমান বলেন, যেহেতু নির্বাচন কমিশন নিয়ে আপত্তি উঠেছে তাই সবার মতামতের ভিত্তিতে নতুন এবং নিরপেক্ষ কমিশন গঠন করা উচিত।

বার নির্বাচনের প্রধান কমিশনার আকতার হোসেন মোবাইল ফোনে বলেন, সবাই চাইলে দায়িত্ব পালন করব, না চাইলে করব না। নির্বাচন কমিশনার হওয়ার জন্য আমরা কারও দ্বারে যাইনি। আমাদের ওপর আস্থা রেখে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আইনজীবীরা না চাইলে আমরা দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াব। তবে যারা দায়িত্ব দিয়েছেন, তারাই আমাদের পরিবর্তন করতে পারবেন বলে তিনি জানান।