লাশের অপেক্ষায় ২১ বছর

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৭

সাদুল্যাপুর (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি

সাদুল্যাপুর উপজেলার দক্ষিণ মন্দুয়ার গ্রামের সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা রাবেয়া বেগম ২১ বছর ধরে সন্তানের লাশের অপেক্ষায় আছেন। ১৯৯৬ সালে তৎকালীন বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে অসহযোগ আন্দোলনের সময় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গুলিতে নিহত হয়েছেন সেলুনকর্মী সোলায়মান হোসেন বোল্লা। তার লাশ পায়নি পরিবার।
বিভিন্ন সূত্র জানায়, ১৯৯৬ সালের ৮ মার্চ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয় সাদুল্যাপুর শহরে। বিক্ষোভ মিছিল ছত্রভঙ্গ করতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী লাঠিচার্জ শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা নির্বিচারে গুলি চালায়।
সাদুল্যাপুর শহরের মুরগির হাটের পাশে লুকিয়ে থাকা সোলায়মান হোসেন বোল্লাকে খুব কাছ থেকে গুলি করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তখন পাশের একটি দোকানের আড়াল থেকে এসব দেখছিলেন সোলায়মান হোসেন বোল্লার বাবা মোহাম্মদ আলী।
সোলায়মান হোসেন বোল্লার ভাগ্নে মফিজুল হক বলেন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী গুলিবিদ্ধ সোলায়মান হোসেন বোল্লাকে গাড়িতে তুলে নেয়। তার লাশ কোথায় দাফন করা হয়েছে, সে হদিস পায়নি তার পরিবার।
সোলায়মান হোসেন বোল্লার মা রাবেয়া বেগম জানান, সেই থেকে তিনি ছেলের লাশের অপেক্ষায়। সোলায়মানের বাবাও মারা গেছেন।
বর্তমানে খেয়ে না খেয়ে থাকেন সোলায়মান হোসেন বোল্লার মা।