বাঘায় উচ্ছেদে কর্মহীন শতাধিক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০১৮

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি

বাঘায় উচ্ছেদের পর দুশ্চিন্তায় পড়েছেন স্বল্প পুঁজির দরিদ্র ব্যবসায়ীরা। যাদের সামান্যতম সামর্থ্য আছে, তারা জায়গা ভাড়া নিয়ে ব্যবসা চালাতে পারলেও সিংহভাগ ব্যবসায়ী কীভাবে জীবিকা নির্বাহ করবেন,

এ চিন্তা পেয়ে বসেছে তাদের। এতদিন মাজার এলাকার ওয়াকফ সম্পত্তিতে ও রাস্তার পাশে পলিথিন টানিয়ে কিংবা ভ্যানের ওপর দোকান বসিয়ে ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করছিলেন এসব ব্যবসায়ী। এদের কেউ

ছিলেন গার্মেন্টের জামা-গেঞ্জি ব্যবসায়ী, কেউ রুটি বিক্রেতা, কেউ ছিলেন পান-সিগারেট ও চা বিক্রেতা।

বুধবার অভিযান চালিয়ে রাস্তার ধারে ও মাজার এলাকার ওয়াকফ সম্পত্তি থেকে শতাধিক দোকান উচ্ছেদ করে উপজেলা প্রশাসন। এর আগে সময় বেধে দিয়ে দোকান সরিয়ে নেওয়ার জন্য মাইকিং করেছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। এর মধ্যে কেউ কেউ দোকান সরিয়ে নিলেও অনেকেই সরিয়ে নেননি।

সরকারি সহযোগিতা ছাড়া ব্যবসা করে সংসার চালানো সম্ভব  নয় বলে মনে করেন এসব ব্যবসায়ী। তাই সরকারের কাছে তারা কর্মসংস্থানের দাবি জানিয়েছেন।

বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা জানান, রাস্তার ফুটপাত ছাড়াও কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই মাজার এলাকার ওয়াকফ সম্পত্তিতে অবৈধভাবে দোকান বসিয়ে ব্যবসা করছিলেন। এতে যানজটে  পথচারীদের চলাফেরায় বিঘ্নসহ পুরনো স্থাপনা ঐতিহাসিক শাহী মসজিদটি বাইরে থেকে কোনোভাবেই দেখার উপায় ছিল না। রাস্তায় চলাচলকারী লোকজনের মসজিদটি দেখার সুবিধার্থে মেইন সড়ক সংলগ্ন ওয়াকফ সম্পত্তিতে প্রাচীর দেওয়া আছে। নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও সেই প্রাচীর ঘিরে ব্যবসা করতেন তারা। জনস্বার্থে উচ্ছেদ করা হয়েছে। তবে তাদের কর্মসংস্থানের বিষয়টি পরে ভেবে দেখা হবে।