গোবিন্দগঞ্জে শিক্ষকের বাড়িতে ডাকাতি মা-মেয়ে আহত

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০১৮      

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রাজাহার ইউনিয়নের শিহিপুর গ্রামে শুক্রবার রাতে এক স্কুলশিক্ষকের বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতরা টাকা, স্বর্ণালঙ্কার ও মোটরসাইকেলসহ ৬ লাখ টাকার সম্পদ লুট করে। এ সময় ডাকাতের হামলায় বাড়ির গৃহিণী ঝর্ণা বেগম ও তার মেয়ে সুরভি আকতার সুমি গুরুতর আহত হন। তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে ডাকাতদল ওইসব মালপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গ্রামবাসী জানায়, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার রাজাহার ইউনিয়নের শিহিপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের বাড়ির প্রাচীর টপকে একদল ডাকাত ভেতরে ঢোকে। তারপর তারা দরজা ভেঙে শফিকুল ইসলামকে তার শয়ন কক্ষে আটকে রেখে তার মেয়ে সুরভি আকতার সুমির ঘরে প্রবেশ করে। তাকে মারধরে গুরুতর জখম করে টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়। সুমির চিৎকারে অন্য ঘর থেকে তার মা ঝর্ণা বেগম এগিয়ে এলে ডাকাতরা তাকেও আহত করে। চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে ডাকাতরা যাওয়ার সময় শফিকুল ইসলামের মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। শফিকুল ইসলাম পার্শ্ববর্তী কালাই উপজেলার মোসলেমগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি মো. মজিবুর রহমান জানান, অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।