দিনাজপুরে পাঠানো হচ্ছে নীলগাইটিকে

প্রকাশ: ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

রাজশাহী ব্যুরো

দিনাজপুরে পাঠানো হচ্ছে নীলগাইটিকে

নওগাঁয় উদ্ধার হওয়া নীলগাইটি বৃহস্পতিবার দিনাজপুরের রামসাগর উদ্যান কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেন রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন- সমকাল

নওগাঁর মান্দা থেকে উদ্ধার করা বিলুপ্তপ্রায় নীলগাইটির জন্য সঙ্গীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। দিনাজপুরের রামসাগর জাতীয় উদ্যানে থাকা মাদী নীলগাইটির কাছেই পাঠানো হচ্ছে। এ জন্য গতকাল বৃহস্পতিবার নীলগাইটি রাজশাহী বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করেছেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

গত ২২ জানুয়ারি নওগাঁর মান্দা উপজেলার জোতবাজার এলাকায় বিলুপ্তপ্রায় নীলগাইটি আটক করেন এলাকাবাসী। ধাওয়া করে আটক করার সময় একটু আহত হয়। পরে নীলগাইটি রাজশাহী বন্যপ্রাণী উদ্ধার ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে এনে চিকিৎসা দেওয়া হয়। রাজশাহীতে আনার পর থেকেই পুরুষ প্রজাতির নীলগাইটির চিকিৎসাসহ সার্বিক দেখভাল করেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। নীলগাইটি সুস্থ হয়ে ওঠায় ভবিষ্যৎ প্রজননের জন্য বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করেন তিনি।

রাজশাহী বন্যপ্রাণী উদ্ধার ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে নীলগাই হস্তান্তরের সময় খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আহত অবস্থ্থায় উদ্ধার করা বিরল প্রজাতির নীলগাইকে রাজশাহীতে নিবিড় পরিচর্যা ও চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। মেয়র হিসেবে নীলগাইটিকে আমি দেখভাল করেছি। এখন নীলগাইটি সুস্থ। তাই বন বিভাগের কাছে বুঝিয়ে দিলাম। এটাকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় উদ্যানে রাখার ইচ্ছে ছিল। কিন্তু দিনাজপুরের রামসাগর জাতীয় উদ্যানে আরেকটি মাদী নীলগাই রয়েছে। বিরল প্রজাতির নীলগাইয়ের বংশবৃদ্ধির জন্যই এটাকে দিনাজপুরে পাঠানো হচ্ছে। নীলগাই হস্তান্তরের সময় রাজশাহী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান, বন্যপ্রাণী পরিদর্শক জাহাঙ্গীর কবির, বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের কর্মকর্তা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।