আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের দু'পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশসহ ৪০ জন আহত হওয়ার ঘটনায় মামলা করেছে পুলিশ। সোমবার আদিতমারী থানার এসআই প্রদীপ চন্দ্র ১৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা দেড় শতাধিক ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা করেন। গ্রেফতার পাঁচজন হলো- কামরুজ্জামান, ছাদেকুল ইসলাম, রুবেল মিয়া, ওমর ফারুক ও হাফিজুল ইসলাম।

আদিতমারী থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তবে সংঘর্ষের পর থেকে গোটা এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সাপ্টিবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রফিকুল আলম ও মনোনয়নপ্রত্যাশী প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা সামছুল ইসলাম সুরুজের ছেলে ইমরুল কায়েস ফারুকের সমর্থকদের মধ্যে রোববার সকালে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

মন্তব্য করুন