গৃহবধূ হত্যা

গোবিন্দগঞ্জে আরও ২ জন গ্রেফতার

প্রকাশ: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯      

গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি

গোবিন্দগঞ্জে এক সন্তানের মা গৃহবধূ রেহেনা হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পুলিশি তদন্তে চাঞ্চল্যকর ও লোমহর্ষক তথ্য উঠে আসতে শুরু করেছে। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আরও দু'জনকে গ্রেফতার করেছে। এর আগে নিহত রেহেনার শ্বশুরসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশ।

উপজেলার কুড়িপাইকা গ্রামের শাকিল এর আগেও বেশ কয়েকটি বিয়ে করেছে। কিন্তু নেশাগ্রস্ত হওয়ায় ও নানা সময়ে স্ত্রীদের নির্যাতন করায় তার কোনো বিয়েই টেকেনি। রেহেনাকেও বিয়ের পর থেকে নির্যাতন করত শাকিল। প্রায় সারাবছরই রেহেনা তার বাবার বাড়ি থেকে চাল-ডালসহ নিত্যদিনের খাবার সামগ্রী নিয়ে আসত। এর ব্যতিক্রম হলেই শাকিল রেহেনার ওপর নির্যাতন চালাত। এ ছাড়া যৌতুকের জন্য শাকিল প্রায়ই রেহেনাকে মারধর করত। এরই একপর্যায়ে গত ২৬ জানুয়ারি রাতে নিখোঁজ হয় রেহেনা।

নিখোঁজের পাঁচ দিন পর গত শুক্রবার পুলিশ উপজেলার গুমানীগঞ্জ ইউনিয়নের কুড়িপাইকা গ্রামের মরা করতোয়া নদীর কচুরিপানার নিচ থেকে নিখোঁজ রেহেনার গলা কাটা ও হাতবিহীন লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনার পর থেকেই রেহেনার স্বামী শাকিল পলাতক।