বেলকুচিতে সিল দেওয়া ব্যালট পেপার উদ্ধার

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০১৯

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

বেলকুচি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এক ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর সিলযুক্ত ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়েছে। উপজেলার সুবর্ণসাড়া এলাকা থেকে ১০৯টি ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়। ব্যালট পেপারগুলোতে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আতাউর রহমানের তালা প্রতীকে সিল দেওয়া ছিল। স্থানীয়রা মঙ্গলবার রাতে এসব উদ্ধার করেন বলে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আতাউর রহমান ও তার ভাই আল মাহমুদ দাবি করেন। মঙ্গলবার রাতে বেলকুচির রাজাপুরে নিজ বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে তারা গণমাধ্যম কর্মীদের উদ্ধারকৃত ব্যালট পেপারগুলো দেখান। এ সময় আতাউর দাবি করেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপির মাধ্যমে তাকে পরিকল্পিতভাবে হারানো হয়েছে। এদিকে, চেয়ারম্যান পদে মাত্র ২৫ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত প্রার্থী মীর সেরাজুল ইসলাম ও তার ভাই ঢাকার বনানী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর মোশারফ হোসেন ইউএনও ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারের বিরুদ্ধে বেলকুচি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি ও ফল পাল্টে দেওয়ারও অভিযোগ করেন। গত ১১ মার্চ বিকেলে তারা জেলা শহরের সিরাজগঞ্জ প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ধরনের অভিযোগ করেন।

বেলকুচি থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, পরাজিত প্রার্থী আতাউর মঙ্গলবার রাতে থানায় জিডির কপি জমা দিয়েছেন। কিন্তু ব্যালট পেপারগুলো উদ্ধারের সময় পুলিশ বা প্রশাসনকে আগে থেকে জানানো হয়নি। সহকারী রিটার্নিং অফিসার জায়েদা খাতুন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম সাইফুর রহমান বলেন, ব্যালট পেপার উদ্ধার করার বিষয়টি সত্যিই রহস্যজনক। উদ্ধারের সময় পুলিশ বা আমাদের অবগত করা হয়নি। প্রশাসনকে অবগত না করে ব্যালট পেপার প্রকাশ্যে প্রদর্শন আইনত দণ্ডনীয়।