প্রধান শিক্ষকের অনিয়মের প্রতিবাদের জের

তিন আ'লীগ নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা

প্রকাশ: ১৫ মার্চ ২০১৯      

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার শেরপুর উপজেলার বিরাকৈর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের নানা অনিয়মের প্রতিবাদ করায় স্থানীয় তিন আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদের হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বাসস্ট্যান্ডে শেরপুর প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন বিরাকৈর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি এসএম মজনু মিঞা।

তিনি বলেন, প্রধান শিক্ষক খান এখতিয়ার উদ্দিন আহমেদ কমিটিকে না জানিয়ে এককভাবে সব সিদ্ধান্ত নেন। নানা অজুহাতে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা উত্তোলন করেন। বিদ্যালয় ফান্ডের টাকাও নয়ছয় করেছেন। এসব বিষয় নিয়ে বিশালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ফজলুল হক, আওয়ামী লীগ নেতা মনির হোসেন, জিয়াউর রহমান ওরফে জিয়ার সঙ্গে তার বিরোধ বাধে। ১০ মার্চ বিদ্যালয়ের এক ছাত্রী স্কুলড্রেস পরে না আসায় তাকে স্কুলের কক্ষ থেকে বের করে দেন প্রধান শিক্ষক। এ নিয়ে জিয়াউর রহমানের সঙ্গে শিক্ষকের বাকবিতণ্ডা হয়েছে। অথচ ঘটনাটিকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে আওয়ামী লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে থানায় চাঁদা দাবির মিথ্যা মামলা করেছেন শিক্ষক। তিনি মিথ্যা মামলা দ্রুত প্রত্যাহারসহ ওই প্রধান শিক্ষকের নানা অপকর্মের তদন্তপূর্বক বিচারের দাবি জানান। এ সময় বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য নবির উদ্দিন, স্থানীয় এলাকাবাসীর মধ্যে আব্দুস সামাদ, নান্নু সরকার, মাসুদ রানা, ছোলায়মান আলী বাবু, মো. কফিল উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এদিকে প্রধান শিক্ষক খান এখতিয়ার উদ্দীন তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক বুলবুল ইসলাম জানান, মামলাটির তদন্ত চলছে।