বখাটের ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ ছাত্রীর

উল্লাপাড়া

প্রকাশ: ১৫ মার্চ ২০১৯      

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

রাস্তায় বখাটের উত্ত্যক্ত, জোরপূর্বক বিয়ের হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শনের কারণে উল্লাপাড়া এইচ টি ইমাম গার্লস স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রীর লেখাপড়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন ধরে স্কুলে যেতে পারছে না ওই ছাত্রী। সে ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী।

ইউএনও ও উল্লাপাড়া মডেল থানায় দেওয়া অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়, একই গ্রামের মতিন সরকারের ছেলে মো. আলমগীর হোসেন ও তার কয়েক সহযোগী দীর্ঘদিন ধরে স্কুলে যাতায়াতের রাস্তায় ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত এবং বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এ ব্যাপারে ছাত্রীটি আপত্তি জানালে তাকে দেখে নেওয়ার এবং প্রয়োজনে ভুয়া কাবিননামা করে জোরপূর্বক বিয়ে করার হুমকি দেয়। কিছুদিন আগে গ্রামে অনুষ্ঠিত সালিশ বৈঠকে ছেলেটির পরিবার থেকে ওই ছাত্রীকে আর উত্ত্যক্ত না করার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু আলমগীর তা রক্ষা না করে আগের মতোই ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। অভিযোগে আরও জানা যায়, গত ১ জানুয়ারি সিরাজগঞ্জ নোটারি পাবলিক কার্যালয় থেকে ওই ছাত্রীর সঙ্গে আলমগীরের বিয়ে হয়েছে বলে ভুয়া এফিডেভিট তৈরি করে ফেসবুকে প্রচার করে। ভুক্তভোগী ছাত্রী অভিযোগ করে, আগামী বছরের শুরুতেই তার এসএসসি পরীক্ষা। এ অবস্থায় স্কুলে ক্লাস করতে না পারায় তার ক্ষতি হচ্ছে। এ ছাড়া কথিত আলমগীর তার বিরুদ্ধে এলাকায় ও ফেসবুকে নানা মিথ্যা কাহিনী ছড়ানোর কারণে সে এখন লজ্জায় বাড়ি থেকে বের হতে পারছে না। অনিশ্চয়তা ও ভীতিকর পরিস্থিতির মধ্যে দিন কাটছে তার।

এ ব্যাপারে উল্লাপাড়া থানায় যোগাযোগ করলে উপপরিদর্শক মোশারফ হোসেন জানান, ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। আলমগীর পালিয়ে বেড়াচ্ছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এ বিষয়ে উল্লাপাড়ার ইউএনও মো. আরিফুজ্জামান জানান, ছাত্রীর মায়ের অভিযোগপত্র তিনি পেয়েছেন। অবিলম্বে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উল্লাপাড়া থানা পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।