অনিয়মের অভিযোগে বন্ধ চাল-গম সংগ্রহ

প্রকাশ: ২০ মে ২০১৯

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি

সরকারিভাবে গম কেনা বা সংগ্রহ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরুর কথা ছিল ১ এপ্রিল। কিন্তু শিবগঞ্জে নানা জটিলতায় তা শুরু না করতে পেরে ১৫ মে দুপুরে আকস্মিকভাবেই খাদ্যগুদামে সংগ্রহ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহম্মেদ। তিনি চলে যাওয়ার পরপরই প্রথম সরবরাহকারী কৃষকের গমে পোকার উপস্থিতি ধরা পড়ে। এ অনিয়মের খবর ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীদের প্রতিবাদে ইউএনও চৌধুরী রওশন ইসলাম গম সংগ্রহ অভিযান স্থগিত করে নতুন করে তালিকা করার নির্দেশ দেন।

কয়েক বছর ধরে ক্রয় কমিটির উপদেষ্টা ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যানরা। এবার তা পরিবর্তন করে সংসদ সদস্যকে উপদেষ্টা করা হয়েছে। কৃষকের তালিকা কৃষি বিভাগ থেকে তৈরি হয়ে উপজেলা ক্রয় কমিটির মাধ্যমে খাদ্যগুদামে পাঠানোর কথা। ক্রয় কমিটি কৃষকের যে তালিকা দেবে খাদ্য বিভাগ সেইসব কৃষকেরই গম কিনবে। কিন্তু প্রথম দিনের এ দুটি অনিয়মের কারণে কৃষক তালিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। আর তাই সে তালিকা স্থগিত করে সংশোধিত তালিকা তৈরির উদ্যোগ নেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা। অন্যদিকে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এসএম আমিনুজ্জামান জানান, অনিয়মের অভিযোগে গম সরবরাহ স্থগিত আছে। আগের কৃষক তালিকায় কোনো অনিয়ম হয়নি দাবি করে তিনি আরও বলেন, তালিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মরত কৃষি বিভাগের লোকজন সরজমিনে প্রকৃত কৃষকের তালিকা তৈরি করছে এবং সে তালিকা অনুযায়ী প্রকৃত কৃষকদের কাছ থেকে গম সংগ্রহ করা হবে।

গম সংগ্রহে অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করে শিবগঞ্জ খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রিয়াজুল হক জানান, ৩ টন গম সংগ্রহের পর ইউএনওর পরামর্শে গম সংগ্রহ কার্যক্রম আপাতত বন্ধ রয়েছে।