পীরগঞ্জে শিক্ষক বরখাস্ত নাটোরে গ্রেফতার ১

প্রকাশ: ১১ জুলাই ২০১৯

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) ও নাটোর প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর শ্নীলতাহানি ও ছাত্রীদের সঙ্গে অশালীন আচরণের অভিযোগে গোদাগাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক কালাচান রায়কে সাময়িক বরখাস্ত করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। গতকাল বুধবার স্কুল ম্যানেজিং কমিটি তাকে সাময়িক বরখাস্তের এ সিদ্ধান্ত নেয়।

এলাকাবাসী জানায়, সম্প্রতি শিক্ষক কালা চান রায় স্কুলের পাশে গোদাগাড়ি বাজারে কোচিং করানোর সময় ঐ স্কুলের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে একা পেয়ে শ্নীলতাহানির চেষ্টা করে। কিন্তু ওই ছাত্রী লজ্জায় বিষয়টি কাউকে জানায়নি। গত মঙ্গলবার ওই শিক্ষক শ্রেণিকক্ষে ছাত্রীদের সঙ্গে অশালীন আচরণ ও অশ্নীল ভাষায় গালাগাল করলে বিষয়টি জানাজানি হয়। এক পর্যায়ে নবম এবং দশম শ্রেণির ছাত্রীরা তার এ ধরনের আচরণের বিরুদ্ধে প্রধান শিক্ষক বরাবর লিখিত অভিযোগ করে এবং বিক্ষুব্ধ অভিভাবকরা স্কুলের সামনে বিক্ষোভ করে। এ অবস্থায় স্কুল কমিটি দ্রুত মিটিং ডেকে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে।

এ ব্যাপারে শিক্ষক কালা চান রায় তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ছাত্রীদের শাসন করতে গিয়ে ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে প্রধান শিক্ষক তৈয়ব আলী বলেন, এ ধরনের আচরণের কারণে ওই শিক্ষক এর আগেও মুচলেকা দিয়েছেন।

এদিকে নাটোর সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের কাঁঠালবাড়িয়া গ্রামে ৬ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে সাত্তার ভূঁইয়া নামে পঞ্চাশোর্ধ এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে তাকে আটক করা হয়। বুধবার সকালে তাকে আদালতে সোপর্দ করে সদর থানা পুলিশ। আটক সাত্তার ভূঁইয়া সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়িয়া গ্রামের মৃত আনোয়ার ভূঁইয়ার ছেলে। নির্যাতনের শিকার শিশুটি ইসলামী ফাউন্ডেশন পরিচালিত মসজিদভিত্তিক শিক্ষাক্রমের শিক্ষার্থী।