পারিবারিক বিরোধে নবদম্পতির আত্মহত্যা

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৯

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি

অপরিণত বয়সে ভালোবেসে দুই মাস আগে বিয়ে করেছিল হাসান আলী (১৭) ও স্বপ্না খাতুন (১৪)। সংসারও শুরু করেছিল তারা। কিন্তু শনিবার ভোরে বিষপানে আত্মহত্যার মাধ্যমে শেষ হলো তাদের সংসার জীবন। নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের গোপীনাথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। হাসান আলী ওই গ্রামের রেজাউল করিমের সন্তান। স্বপ্নার বাড়ি রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায়। হাসান নাজিরপুর ডিগ্রি কলেজে এইচএসসিতে আর স্বপ্না পুঠিয়ার একটি বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পড়ত।

নাজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান শওকত রানা জানান, হাসান ও স্বপ্নার মধ্যে প্রেম চলছিল। মাস দুয়েক আগে তারা বিয়ে করে। এতে দুই পরিবারের সম্মতি না থাকলেও তারা বিয়ে মেনে নেয়। গত শুক্রবার স্বপ্নার মা তার মেয়েকে দেখতে আসেন। ওই সময় মেয়ে ও জামাইয়ের সঙ্গে তার কথাকাটাকাটি হয়। স্বপ্নার মা রাতে চলে যান। কিন্তু শনিবার ভোরে স্বামী-স্ত্রী দু'জনই গ্যাসট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। মুমূর্ষু অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মোজাহারুল ইসলাম বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে থানায় কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি। যেহেতু রাজশাহীতে তারা মারা গেছে, সেখানেই অভিযোগ নেওয়া হবে।