মিঠাপুকুরে অর্পিত সম্পত্তি উদ্ধারের দাবি

প্রকাশ: ১৪ নভেম্বর ২০১৯

মিঠাপুকুর (রংপুর) প্রতিনিধি

মিঠাপুকুরে অর্পিত ও বেদখল হয়ে যাওয়া ১৭ একর সম্পত্তি উদ্ধারের জন্য সরকারের হস্তক্ষেপ দাবি করেছে এক হিন্দু পরিবার। গতকাল বুধবার স্থানীয় একটি হোটেলে এই দাবি জানান ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পক্ষে সুশীল চন্দ্র সরকার ও সুবীর চন্দ্র সরকার।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, স্বাধীনতার পর স্থানীয় ভূমিদস্যু ও চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের সীমাহীন নির্যাতনে সুশীল চন্দ্র সরকারের বাবা রমেশ চন্দ্র সরকার ও সুবীর চন্দ্র সরকারের বাবা মথুর চন্দ্র সরকার জমি, বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র চলে যান। ওই সময় ভূমিদস্যুরা তাদের বসতভিটাসহ ১০ একর সম্পত্তি দখল করে নেয়। এর পর ৮ একর সম্পত্তি অর্পিত সম্পত্তি হিসেবে 'খ' তফসিলভুক্ত হয়ে যায়। এদিকে ২০১৩ সাল থেকে অর্পিত সম্পত্তি আইন বাতিল করা হয়। ওই সময় ওয়ারিশ সূত্রে সম্পত্তি অবমুক্তি করতে নামজারি করার জন্য ২০১৭ সালের ২৮ ডিসেম্বর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসে আবেদন করেন। আবেদনের শুনানিকালে ওয়ারিশ হিসেবে প্রমাণ্য দলিল উত্থাপন করার পরও নামজারি না করে রহস্যজনক কারণে তাদের আবেদন চলতি বছরের ৩১ অক্টোবর নথিজাত করা হয়। পরে ওই সম্পত্তি উদ্ধারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সচিব, ভূমি মন্ত্রণালয়, বিভাগীয় কমিশনার রংপুর এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) বরাবরে লিখিত আবেদন করেছেন। বিষয়টি নিয়ে কথা বললে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রোকসানা বেগম বলেন, আমার কার্যালয়ে অত্যন্ত স্বচ্ছতার ভিত্তিতেই সম্পত্তির নামজারি করা হয়। এ-সংক্রান্ত কোনো অনিয়ম করার প্রশ্নই আসে না।