নওগাঁয় প্রেমের সম্পর্ক না রাখার জেরে কুপিয়ে তরুণীর হাতের আঙুল বিচ্ছিন্ন হয়েছে। তরুণীকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার শহরের দয়ালের মোড় পপুলার ল্যাব অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সামনে ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসী আঙুল বিচ্ছিন্ন করার অভিযোগে নজমুল হোসেনকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

২০১৬ সালে স্বামী মারা যাওয়ার পর শহরের দয়ালের মোড় এলাকার বিভিন্ন বাড়িতে গৃহকর্মীর কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলেন ওই তরুণী। সোমবার দয়ালের মোড় এলাকার হাসপাতাল রোড় দিয়ে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে পেছন থেকে নজমুল হোসেন চাপাতি দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। এতে মাথা ও ঘাড়ের বিভিন্ন স্থান জখম হয়। একপর্যায় নজমুলের চাপাতির আঘাতে ওই তরুণীর একটি আঙুল বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

নজমুল হোসেন বলেন, ওই তরুণীর সঙ্গে পরিচয়ের একপর্যায় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বেশ কিছুদিন ধরে ওই তরুণী তাকে এড়িয়ে চলছিল। এ কারণে তাকে কুপিয়েছেন।

মন্তব্য করুন