করোনায় মৃত্যুবরণকারী পুলিশ কনস্টেবল নাজমুল হোসেন স্মরণে দিনাজপুরের খানসামা থানায় 'করোনাযোদ্ধা কনস্টেবল নাজমুল হোসেন স্মৃতি লাইব্রেরি'র ভিত্তি স্থাপন করা হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এটিই দেশের প্রথম পুলিশ সদস্যের স্মরণে লাইব্রেরি।

নাজমুল ২০০৭ সালে পুলিশে কনস্টেবল পদে যোগদান করেন। ২০২০ সালের ১৬ অক্টোবর গাইবান্ধা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং শাখায় কর্মরত থাকা অবস্থায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান।

শুক্রবার খানসামা থানা চত্বরে এই লাইব্রেরির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন কনস্টেবল নাজমুল হোসেনের বাবা শরিফউদ্দীন ও ৬ বছর বয়সী ছেলে সোয়েব জামান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বীরগঞ্জ সার্কেল) ওয়ারেস হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী লায়ন, ওসি শেখ কামাল হোসেন, পরিদর্শক (তদন্ত) মমিনুজ্জামান, ভেড়ভেড়ি ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজ সরকার, কনস্টেবল নাজমুল হোসেনের মা নুরনেহার খাতুন, স্ত্রী শারমিন আক্তার, ১০ বছর বয়সী মেয়ে সানজিদা আক্তার সাথী প্রমুখ।

এ বিষয়ে খানসামা থানার ওসি শেখ কামাল হোসেন বলেন, থানায় সেবাগ্রহীতাদের সময় কাটানোর জন্য এ লাইব্রেরি করা। আর বাংলাদেশ পুলিশের একজন গর্বিত সদস্য খানসামা উপজেলার বাসিন্দা নাজমুল হোসেনের স্মরণেই এই নামকরণ।

মন্তব্য করুন