তাড়াশের বীর মুক্তিযোদ্ধা মুনসুর আলী এক বছর ধরে মুক্তিযোদ্ধার সম্মানী ভাতা পাচ্ছেন না। এ অবস্থায় অসুস্থ এ মুক্তিযোদ্ধা মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

তালম ইউনিয়নের কুন্দাশন গ্রামের বাসিন্দা মুনসুর আলী ভারতীয় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাই কমিটি ২০১৭ সালে তাকে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে তার নাম জামুকাতে পাঠায়। তিনি যাচাই-বাছাই তালিকায় নাম থাকলেও মুক্তিযোদ্ধা গেজেটে এবং মুক্তিযোদ্ধাবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইডে তার নাম প্রকাশ করা হয়নি।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মুনসুর আলী জানান, ৭নং সেক্টর কমান্ডার লে. কর্নেল কাজী নুরুজ্জামান (অব.) অধীনে যুদ্ধ করেছেন। ১৫ বছর ধরে সম্মানী ভাতা পেলেও হঠাৎ এক বছর হলো ভাতা আর পাচ্ছেন না।

তিনি জানান, শ্বাসকষ্টের রোগী। ভাতা না পাওয়ায় টাকার অভাবে ওষুধও কিনতে পারছেন না।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আরশেদুল ইসলাম বলেন, মুনসুর ভাই একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা। কিন্তু রিপোর্টে তার নাম না থাকায় ভাতা পাচ্ছেন না। তবে মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় তার নাম প্রথমে আছে।

মন্তব্য করুন