পাবনার চাটমোহর উপজেলার কুমারগাড়া গ্রাম থেকে শুক্রবার স্বামীর নির্যাতনের শিকার মুন্নী খাতুন নামে এক গৃহবধূকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। মুন্নী ওই গ্রামের জনি হোসেনের স্ত্রী।\হএ ব্যাপারে শুক্রবার মুন্নীর বাবা উপজেলার পার্শ্বডাঙ্গা গ্রামের আবু বক্কার চাটমোহর থানায় অভিযোগ করেছেন। জনির ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মুন্নীর কান কেটে যায়। মুন্নীকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।\হজানা গেছে, উপজেলার কুমারগাড়া গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে জনি হোসেনের সঙ্গে দুই বছর আগে বিয়ে হয় পার্শ্বডাঙ্গা গ্রামের আবু বক্কারের মেয়ে মন্নী খাতুনের।\হএলাকাবাসী জানায়, জনি আগেও একাধিক বিয়ে করেছিল। এলাকায় নানা অপরাধের সঙ্গে সে জড়িত।\হচাটমোহর থানার ওসি মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, জনির বাড়ি থেকে কিছু দেশি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। পরে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন