বগুড়ার সোনাতলা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বিদ্রোহী প্রার্থীসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের ১৯ নেতাকে বহিস্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। গত শনিবার আওয়ামী লীগ সোনাতলা পৌর শাখার এক বর্ধিত সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

সভায় সোনাতলা পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহিদুল বারী রব্বানীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনিবাহী কমিটির সদস্য, জেলা শ্রমিক লীগের সহসভাপতি ও সোনাতলা পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য জাহাঙ্গীর আলম নান্নুকে দলীয় সব পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে বহিস্কার করার জন্য সুপারিশ করা হয়।

সভায় একই সঙ্গে বিদ্রোহী প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের পক্ষে নির্বাচনী কাজে অংশগ্রহণ করায় সোনাতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক তাহেরুল ইসলাম তাহের, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জাকির হোসেন জাকির, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মশিউর রহমান রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইব্রাহীম হোসেন দুলু, মধুপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি দবির হোসেন মণ্ডল, দিগদাইড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, সহসভাপতি মাহফুজার রহমান মাফু, জাতীয় শ্রমিক লীগ সোনাতলা উপজেলা শাখার আহ্বায়ক আকতার হোসেন বুলু, যুগ্ম আহ্বায়ক এটিএম রেজাউল করিম মানিক, শ্রমিক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক তৌহিদ আলমসহ ১৯ জনকে সংগঠনের সব পদ থেকে অব্যাহতি দিয়ে বহিস্কার করার সুপারিশ করা হয়।

সোনাতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিনহাদুজ্জামান লীটন ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ আব্দুল মালেক, পৌর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মো. সাইদুর রহমান খোকা ও সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমানের যৌথ স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।\হএ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিনহাদুজ্জামান লীটন বলেন, জাহাঙ্গীর আলম নান্নুকে দলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় বহিস্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। আর অন্যদের বিষয়ে খোঁজ নিতে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়েছিল। তদন্তে জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নির্বাচনী কাজ করার সংশ্নিষ্টতা পাওয়ায় ১৯ জনকে দল থেকে অব্যাহতি ও বহিস্কারের সুপারিশ করা হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আল রাজী জুয়েল বলেন, সোনাতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এ ধরনের আবেদন পাওয়া গেছে। বিষয়টি জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের কাছে উপস্থাপন করা হবে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আগামী ২ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বগুড়ার সোনাতলা পৌরসভার নির্বাচন।

মন্তব্য করুন