উল্লাপাড়ায় করতোয়ার ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) অবশেষে স্থায়ী ব্যবস্থা নিয়েছে। সরকারের ডেলটা প্ল্যানের অন্তর্ভুক্ত বাঙালি, করতোয়া, ফুলজোর ও হুড়াসাগর নদী খনন ও নদীতীর সংরক্ষণ প্রকল্পের আওতায় এরইমধ্যে নদীতে সিসি ব্লক ফেলা হয়েছে।

চলতি বছরের জুন মাস থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত সময়ে করতোয়া নদীর ভাঙনে উল্লাপাড়ার বন্যাকান্দি, চরকালিগঞ্জ, কালিগঞ্জ, রামকান্তপুর, বেতবাড়ী, পূর্ব সাতবাড়িয়া, বড়হর, আমডাঙ্গা, টিওরহাটি ও ঘাটিনা গ্রামের অন্তত ৬০টি বাড়ি এবং ৪০ বিঘারও বেশি ফসলি জমি নদীতে বিলীন হয়েছে। অনেক পরিবার ভাঙন আতঙ্কে ঘরবাড়ি ভেঙে সরিয়ে নিয়েছে। এসব গ্রামের মানুষ নদীর ভাঙন রোধে স্থায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পাউবোর কাছে বার বার দাবি জানিয়ে আসছিলেন। পানি উন্নয়ন বোর্ড গেল বর্ষা মৌসুমে সাময়িক ভাঙন রোধে কয়েক হাজার জিও ব্যাগ নদীর বিভিন্ন স্থানে ফেলেছে। কিন্তু ভাঙন রোধ করা যায়নি।

এ ব্যাপারে সমকালে চলতি বছরে জুন ও জুলাই মাসে দুটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

মন্তব্য করুন