বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে 'বীরনিবাস' পাচ্ছেন সাদুল্যাপুর উপজেলার দশজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। প্রতিটি বীরনিবাস নির্মাণের জন্য ব্যয় হবে ১৩ লাখ ৪৩ হাজার ৬১৭ টাকা ৬৩ পয়সা। এরইমধ্যে বীরনিবাস নির্মাণের জন্য লটারির মাধ্যমে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নির্বাচন করা হয়েছে। নির্মাণকাজ শুরু হবে চলতি বিজয় দিবসের আগেই।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম জানান, প্রতিটি বীরনিবাস নির্মাণ হবে চার শতাংশ জমির ওপর। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নিজের জমিতে ইটের তৈরি একতলা ভবনে আছে দুটি মাস্টার বেড রুম, একটি ডাইনিং, দুটি বাথরুম, একটি কিচেন, একটি ড্রয়িং ও একটি অ্যাপ্রোচ রাস্তা। এখানে একটি পরিবার সুন্দরভাবে বসবাস করতে পারবেন। আধুনিক বাসা-বাড়িতে থাকার মতো সব ধরনের সুযোগ-সুবিধাই আছে বীরনিবাসে।

সাদুল্যাপুর উপজেলা পরিষদ হলরুমে গত রোববার সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট উম্মে কুলসুম স্মৃতি লটারির মাধ্যমে 'বীরনিবাস' নির্মাণের জন্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নির্বাচন করেন। এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান সাহারিয়া খাঁন বিপ্লব, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রশিদ আজমি প্রমুখ।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোকসানা বেগম ও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন