নিজের স্ত্রীর ছবি অন্যের সঙ্গে যুক্ত করার অভিযোগে গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার দক্ষিণ সন্তোলা গ্রামের এক নারী তার স্বামীর বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

ওই নারী থানায় লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, ২০২০ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি তার বিয়ে হয়। এরপর থেকে তাকে বিভিন্ন সময় যৌতুকের জন্য চাপ দিতে শুরু করেন তার স্বামী। এক পর্যায়ে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য মারধর করলে তিনি প্রায় ছয় মাস আগে বাবার বাড়ি চলে যান। পরে স্বামীর বিরুদ্ধে গাইবান্ধার আমলি আদালতে একটি মামলাও দায়ের করেন তিনি। আদালত থেকে এই মামলার নোটিশ পেয়ে ক্ষিপ্ত স্বামী তার ছবির সঙ্গে অজ্ঞাত ব্যক্তির ছবি সংযুক্ত করে কম্পিউটারে এডিটিং করেন। পরে এই ছবি পাঠান তার স্ত্রীর ফেসবুক আইডির মেসেঞ্জারে। একইভাবে ১৯ নভেম্বর সকালে স্বামী সোহেল রানা একই ছবি আবার পাঠান তার স্ত্রীর খালাতো ভাইয়ের ফেসবুক আইডির মেসেঞ্জারে। যার পরিপ্রেক্ষিতে বাধ্য হয়ে তিনি আইনের আশ্রয় নেন।

থানার ওসি প্রদীপ কুমার রায় জানান, ওই নারীর স্বামীর বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য করুন