সংবাদ সংক্ষেপ

প্রকাশ: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

মহাত্মা গান্ধীর

প্রতিকৃতিতে গুলি

ভারতের জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর মৃত্যুবার্ষিকীতে তার প্রতিকৃতিতে গুলি করেছেন হিন্দু মহাসভার নেত্রী পূজা শাকুন পাণ্ডে। ৩০ জানুয়ারির এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ভারতজুড়ে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার উত্তর প্রদেশের আলিগড় থেকে পূজাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গান্ধীর হত্যাকাণ্ডের ঘটনার পুনরাভিনয়ে জড়িত থাকার দায়ে কট্টরপন্থি হিন্দু মহাসভা গোষ্ঠীর ১২ সদস্যের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়ের হয়েছে। ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, সঙ্গীসাথী নিয়ে গেরুয়া শাড়ি পরা পূজা গান্ধীর প্রতিকৃতিতে পিস্তল দিয়ে গুলি করেন। এরপর গান্ধীর হত্যাকারী নথুরাম গডসের ছবিতে মালা পরিয়ে দেন তিনি। সূত্র :এনডিটিভি।



কার্ল মার্ক্সের সমাধি

স্তম্ভে হামলা

লন্ডনে বিপ্লবী দার্শনিক কার্ল মার্ক্সের সমাধিস্তম্ভে হাতুড়ি হামলা হয়েছে। সাদা মার্বেল পাথরের স্মৃতিস্তম্ভে কালো অক্ষরে খোদাই করে মার্ক্সের নাম, জন্ম ও মৃত্যুর তারিখ দেওয়া আছে। হামলাকারী হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে ওই পাথরটি বিকৃত করেছে। কয়েক দিনের মধ্যেই এ হামলাটি চালানো হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে হাইগেট সিমেট্রি ট্রাস্ট। ছবিতে দেখা গেছে, ওই পাথরে মার্ক্স, তার স্ত্রী ও নাতির নামাঙ্কিত এপিটাফ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, সমাধিস্তম্ভে হামলার খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে। 'ডাস ক্যাপিটালের' লেখক মার্ক্স ১৮৪৯ থেকে ১৮৮৩ সাল পর্যন্ত লন্ডনে বাস করেছেন। সূত্র :সিএনএন।



'ইরাক থেকে ইরানে

যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রাসন নয়'

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী আদিল আবদুল মাহদি বলেছেন, অন্য কোনো দেশে আগ্রাসী তৎপরতা চালানোর কাজে কাউকে ইরাকের ভূমি ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না। ইরাকি ভূখণ্ড ব্যবহার করে ইরানে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রাসন পরিচালনা না করতে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করে দিয়েছে বাগদাদ। গত মঙ্গলবার বাগদাদে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এমন মন্তব্য করেন। আদিল আবদুল মাহদি বলেন, ইরাকে যুক্তরাষ্ট্রের স্থ্থায়ী কোনো সামরিক ঘাঁটি নেই। তবে আন্তর্জাতিক সামরিক জোটের আওতায় ইরাকি সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ দিতে কিছু যুক্তরাষ্ট্রের সেনা মোতায়েন রয়েছে। সূত্র :পার্স টুডে।



ইরাকি প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোনো অবস্থাতেই ইরাককে আরেক দেশের বিরুদ্ধে ব্যবহারের জন্য অন্য কোনো দেশকে অনুমতি দেওয়া হবে না। বাগদাদ কখনোই দুটি দেশের মধ্যে সংঘাতের অংশীদার হবে না।

এর আগে গত সোমবার ইরাকের প্রেসিডেন্ট বারহাম সালিহ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বক্তব্যের বিরোধিতা করে বলেছিলেন, প্রতিবেশী কোনো দেশে হামলার কাজে ইরাকি ভূমি ব্যবহারের ব্যাপারে সংবিধানে সুস্পষ্ট নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।

গত রোববার যুক্তরাষ্ট্রের টেলিভিশন নেটওয়ার্ক সিবিএসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প ইরাকে একটি স্থ্থায়ী সেনাঘাঁটি স্থাপনের আগ্রহ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ইরানের তৎপরতার ওপর নজর রাখতে এমন একটি ঘাঁটি স্থাপন জরুরি।