পশ্চিমা ত্রাণে বাধা দিচ্ছে সেনাবাহিনী :গুইদো

যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো ত্রাণ প্রত্যাখ্যান মাদুরোর

প্রকাশ: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

ভেনিজুয়েলার সেনাবাহিনী কলম্বিয়া সীমান্তবর্তী একটি সেতু বন্ধ করে রেখেছে বলে দাবি করেছে বিরোধী দল। তাদের দাবি, আন্তর্জাতিক মানবিক সহায়তা পৌঁছানোর ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করছে সেনাবাহিনী। এদিকে ভেনিজুয়েলা ইস্যুতে নিজের অবস্থান পরিস্কার করতে চাপের মুখে রয়েছেন যুক্তরাজ্যের বিরোধীদলীয় নেতা জেরেমি করবিন। খবর বিবিসির।

ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট মাদুরো এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের পাঠানো ত্রাণ প্রত্যাখ্যান করে তেলের ওপর আরোপ করা অবরোধ প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তাকে সম্মানহানির অপচেষ্টা আখ্যা দিয়ে তিনি বলেছেন, ভেনিজুয়েলার মানুষ ভিক্ষুক নয়।

নির্বাচনী কারচুপির অভিযোগ আর অর্থনৈতিক সংকট ভেনিজুয়েলার জনগণকে তাড়িত করেছে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে। বিক্ষোভের সুযোগে ২৩ জানুয়ারি নিজেকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করেন বিরোধীদলীয় নেতা জুয়ান গুইদো। পশ্চিম-সমর্থিত গুইদো ঘোষণা দেন, ভেনিজুয়েলার জনগণের সহায়তা দেওয়ার জন্য তিনি আন্তর্জাতিক ত্রাণ সহযোগীদের নেটওয়ার্ক বানাবেন। তার অনুরোধে ভেনিজুয়েলার জন্য ত্রাণ পাঠানোর কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ভেনিজুয়েলার এক ক্যাথলিক সংস্থা দাবি করেছে, কলম্বিয়া-কানাডা আর জার্মানির বিভিন্ন কোম্পানি থেকেও ত্রাণ আসছে। তবে ত্রাণ প্রবেশে বাধা দেওয়া হচ্ছে।



এদিকে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ফিন্যান্সিয়াল টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মাদুরোর বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ব্যর্থতার অভিযোগ সত্ত্বেও তার সমালোচনা করতে অস্বীকৃতি জানান করবিন।

ভেনিজুয়েলার বিরুদ্ধে ব্রিটিশ সরকারের নিষেধাজ্ঞা আরোপেরও বিরোধী করবিন। তিনি দেশটিতে সব ধরনের বাইরের হস্তক্ষেপের বিরোধী। দেশটির ভবিষ্যৎ সে দেশের নাগরিকদের ওপরই ছেড়ে দিতে চান তিনি। এ নিয়ে চাপের মুখে পড়েছেন করবিন।