এবার দিল্লিতে ধরনায় বসবেন মমতা

প্রকাশ: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

কলকাতায় ধরনা প্রত্যাহার করলেও আগামী সপ্তাহে দিল্লিতে একই কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, আমরা লড়াই থামাচ্ছি না, আমরা এ লড়াইকে দিল্লিতে নিয়ে যাব। এদিকে কলকাতার নগরপাল রাজীব কুমারকে জেরা করার জন্য যখন পাঁচ সদস্যের দল গড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে সিবিআই, তখন সেই প্রশ্নোত্তর পর্বে পুলিশ কমিশনার কী জবাব দেবেন, তা নিয়ে লালবাজারে চলছে চূড়ান্ত তোড়জোড়। খবর এনডিটিভির।

কলকাতায় তিন দিন পর ধরনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়ে মমতা বলেন, সংবিধান ও গণতন্ত্রের জন্য এই ধরনা। আজ আমাদের জয় হয়েছে, তাই ধরনা প্রত্যাহার করছি। সুপ্রিম কোর্ট ইতিবাচক রায় দিয়েছেন। আগামী সপ্তাহে আমরা দিল্লি যাব। দিল্লির যন্তরমন্তরে সম্ভাব্য ওই কর্মসূচিতে অন্যান্য প্রদেশের সমমনা মুখ্যমন্ত্রীরাও অংশ নিতে পারেন বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ তেলেগু দেশাম পার্টির নেতা অল্প্রব্দ প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইড়ু এবং তেজস্বী যাদবের সঙ্গে প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠকের পর মমতা ধরনা তুলে নেওয়ার ঘোষণা দেন।

চন্দ্রবাবু বলেন, আমরা শরদ পাওয়ার, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, শরদ যাদবসহ কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা সবাই মমতার এই ধরনা কর্মসূচি বন্ধ করা উচিত বলে মত দিয়েছেন। আমরা এ বিষয়টি দিল্লিতে নিয়ে যাচ্ছি। এর আগে সকালে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে আপাতত গ্রেফতার না করার সিদ্ধান্ত দেন।

সারদা ও রোজভ্যালি অর্থ কেলেঙ্কারির ঘটনায় জব্ধ করা তথ্যপ্রমাণ ও আলামত ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআইকে হস্তান্তর করেননি অভিযোগে গত রোববার কলকাতার লাউডন স্ট্রিটে রাজীবের বাড়িতে হানা দেন সিবিআই কর্মকর্তারা। কলকাতার পুলিশ সিবিআই কর্মকর্তাদের বাড়িতে ঢুকতে না দিয়ে আটক করে থানা নিয়ে যায়, অবশ্য পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

জাতীয় নির্বাচনের মাত্র দুই মাস আগে সিবিআই ও রাজ্য পুলিশের এই বিরোধকে রাজনৈতিক চেহারা দিয়ে রীতিমতো তুলকালাম বাধিয়ে দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা।