শেষ ধাপে উত্তাল পশ্চিমবঙ্গ

প্রকাশ: ১৬ মে ২০১৯      

সমকাল ডেস্ক

ভারতের লোকসভা নির্বাচন শেষের পথে। সাত ধাপের ভোটের শেষ ধাপ ১৯ মে। এই শেষ সময়ে এসেই গত মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতায় বিজেপি এবং তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ঘ হয়েছে। এর জেরে গতকালও উত্তাল ছিল কলকাতার রাজপথ। এদিকে বুধবার দেশটির নির্বাচন কমিশন পশ্চিমবঙ্গে শেষ ধাপে নির্বাচনী প্রচার বন্ধ ঘোষণা করেছে, যা ভারতের ইতিহাসে নজিরবিহীন। খবর এনডিটিভির।

সংঘর্ষের ঘটনায় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ তৃণমূল কংগ্রেসকে দায়ী করেছেন। অভিযোগ করেছেন, নির্বাচন কমিশন 'নির্বাক দর্শকের' ভূমিকায় ছিল। অমিত শাহর নির্বাচনী রোডশো চলাকালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে দল দুটির কর্মী-সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এ নিয়ে গতকাল বুধবার কলকাতার নির্বাচন কমিশন জরুরি বৈঠকে বসে।

মঙ্গলবারের ওই সংঘর্ষের সময় ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাংচুর করা হয়েছে। এ জন্য বিজেপি ও তৃণমূল একে অপরকে দায়ী করেছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এ ঘটনায় বিজেপিকে দায়ী করে একে 'লজ্জাজনক' বলে আখ্যায়িত করেছেন। গতকাল কলকাতায় তিনি বিজেপির বিরুদ্ধে 'ধিক্কার' মিছিলে নেতৃত্ব দেন।

বিজেপিও তৃণমূলকে ছেড়ে কথা বলেনি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, অমিত শাহর রোডশোতে তৃণমূলের গুণ্ডারা হামলা চালিয়েছে।

আসামে গ্রেনেড হামলায় নিহত দুই :বুধবার রাত ৮টায় গুয়াহাটিতে গ্রেনেড হামলায় দু'জন নিহত ও আটজন আহত হয়েছেন। হামলার দায় স্বীকার করেছে উলফা থেকে বেরিয়ে জন্ম নেওয়া উলফা স্বাধীন নামের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন।