ক্ষুব্ধ বিরোধী শিবির

প্রকাশ: ২৩ মে ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

ভোটার ভেরিফায়েড পেপার অডিট ট্রায়াল (ভিভিপ্যাট) নিয়ে বিজেপিবিরোধী ২২টি রাজনৈতিক দলের দাবি নাকচ করে দিয়েছে ভারতের নির্বাচন কমিশন। গতকাল নির্বাচন কমিশন অফিস থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, আজকের (২৩ মে) ভোট গণনায় কোনো পরিবর্তন করা সম্ভব নয়। শিবিরের জন্য এটাকে বড় এক ধাক্কা বলে মনে করা হচ্ছে। এতে তীব্র ক্ষোভ দেখা দিয়েছে বিরোধী শিবিরে। খবর জিনিউজের।

ভিভিপ্যাট হলো মূলত এক ধরনের প্রিন্টার, যা ইভিএমের সঙ্গে যুক্ত থাকে। ইভিএমে ভোট দিলে ভিভিপ্যাটে একটি কাগজের স্লিপ বের হয়। যা থেকে ভোটার দেখতে পারেন তিনি কোথায় ভোট দিলেন।

ভিভিপ্যাট নিয়ে বিরোধীদের দাবি খারিজ করে দিয়ে নির্বাচন কমিশন বলেছে, ভোট গণনায় কোনো পরিবর্তন করা সম্ভব নয়। অর্থাৎ লটারির মাধ্যমে একেকটি আসনের পাঁচটি বুথের ভিভিপ্যাটের স্লিপ গোনা হবে। এই গণনা হবে ইভিএমে ভোট গণনার পর। মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনে গিয়ে ভিভিপ্যাট নিয়ে নিজেদের দাবির কথা জানিয়ে এসেছিল বিজেপিবিরোধী ২২টি রাজনৈতিক দলের জোট।

সব ভিভিপ্যাটের কাগজের স্লিপের সঙ্গে ইভিএমের তথ্য মিলিয়ে দেখতে বিরোধীদের দাবি আগেই নাকচ করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। নির্বাচন কমিশনের যুক্তি ছিল, সব কাগজের স্লিপ মিলিয়ে দেখতে হলে নির্বাচনের ফল বের হতে অনেক দেরি হয়ে যাবে। শেষ পর্যন্ত প্রতিটি আসনে পাঁচটি বুথে ভিভিপ্যাটের সঙ্গে ইভিএম মিলিয়ে দেখার অনুমতি দেয় সুপ্রিম কোর্ট। যদিও বিরোধীদের দাবি ছিল, গণনাকেন্দ্রে সবার আগে লটারির ভিত্তিতে চিহ্নিত ভিভিপ্যাটগুলোর সঙ্গে ইভিএমের ভোট মিলিয়ে দেখতে হবে। মঙ্গলবার এই দাবি নির্বাচন কমিশনে গিয়ে জানিয়ে এসেছিল বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতিনিধি দল।

বিরোধী দলগুলোর সেই দাবি নিয়েই গতকাল নয়াদিল্লিতে বৈঠকে বসেন নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা। তার পরই নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, ভোট গণনা প্রতিক্রিয়ায় আর কোনো পরিবর্তন করা এখন সম্ভব নয়।