উত্তপ্ত হংকং

প্রস্তাবিত আইন পাসে অনড় কর্তৃপক্ষ

প্রকাশ: ১১ জুন ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

চীনে বন্দি প্রত্যর্পণের সুযোগ রেখে প্রস্তাবিত আইনের পক্ষে অনড় মনোভাবের কথা প্রকাশ করেছেন অঞ্চলটির বেইজিংপন্থি শাসক ক্যারি ল্যাম। গতকাল সোমবার ল্যাম স্পষ্ট বলে দিয়েছেন, প্রস্তাবিত এ আইনের কোনো কাটছাঁট করা হবে না। রোববার হংকংয়ের রাস্তায় লাখো জনতার বিক্ষোভের প্রতিক্রিয়ায় এ কথা বলেন তিনি। খবর বিবিসির।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ক্যারি ল্যাম বলেন, এ আইনের প্রয়োজন রয়েছে এবং এতে মানবাধিকারের রক্ষাকবচগুলো যুক্ত করা হয়েছে। তার দাবি, প্রস্তাবিত এ আইনটি বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে তোলা হয়নি। বিবেকের তাড়না এবং হংকংয়ের প্রতি অঙ্গীকার থেকেই এ প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়েছে। চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো হংকংয়ে ওই বিক্ষোভের পেছনে বিদেশি শক্তির মদদ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছে। রোববার ওই বিক্ষোভে প্রায় ১০ লাখ লোক জমায়েত হয়েছে বলে দাবি করে আয়োজনকারী সংগঠন সিভিল হিউম্যান রাইটস ফ্রন্ট। পুলিশ জানিয়েছে, আড়াই লাখের বেশি লোক হয়নি।

হংকংয়ের জনসংখ্যা প্রায় ৭৪ লাখ হলেও ১২শ' জনের একটি বিশেষ কমিটি নেতা বাছাইয়ে ভোট দেওয়ার সুযোগ পায়। অঞ্চলটির নেতা বা প্রধান নির্বাহী ক্যারি ল্যামের দাবি, হংকং যে বিশেষ স্বাধীনতা উপভোগ করে; নতুন আইনের ফলে তার কোনো ক্ষতি হবে না। তবে সেখানকার গণতন্ত্রপন্থি বিক্ষোভকারীরা বলছে, আইনটির মাধ্যমে অঞ্চলটির রাজনৈতিক ভিন্নমতাবলম্বীদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করবে বেইজিং। এর প্রতিবাদ জানাতেই তারা রাজপথের বিক্ষোভে শামিল হয়েছে।