হংকংয়ে ফের বিক্ষোভ সংঘর্ষ, গ্রেফতার

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

ফের রাজপথে নেমেছেন হংকংয়ের সরকারবিরোধীরা। চীন সীমান্তের কৌলুন শহরের একটি স্টেশনে গতকাল রোববার গণতন্ত্রপন্থিরা উপস্থিত হয়ে চীনা নাগরিকদের বিতর্কিত বন্দি প্রত্যর্পণ বিল নিয়ে হংকংয়ে কি হচ্ছে, সে বিষয়ে অবহিত করেন। পরে স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় মংকক এলাকায় সরকারবিরোধীদের লাঠিপেটা করে পুলিশ। ছাতা দিয়ে পুলিশের লাঠিপেটা ঠেকাতে দেখা গেছে বিক্ষোভকারীদের। এ সময় বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে ধরে নিয়ে যায় পুলিশ। গত সোমবার গণতন্ত্রপন্থিরা হংকংয়ের আইন পরিষদে ঢুকে ভাংচুর চালানোর এক সপ্তাহ পর নতুন করে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটল। খবর বিবিসি ও এএফপির।

গত জুন মাস থেকে একটি প্রস্তাবিত বন্দি প্রত্যর্পণ বিল পাস করা-না করা নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে আছে হংকং। বিক্ষোভের মুখে গত মাসের শেষের দিকে হংকংয়ের চীনপন্থি প্রধান নির্বাহী ক্যারি লাম বিলটি অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিতের ঘোষণা দেন। তবে গণতন্ত্রপন্থিরা বিলটি একেবারে বাতিল এবং লামের পদত্যাগ চাইছেন।

গতকাল কৌলুন শহরের রাজপথে শোভাযাত্রা করে পশ্চিম কৌলুনের একটি রেলস্টেশনের দিকে যান গণতন্ত্রপন্থিরা। ওই রেলস্টেশনটি ব্যবহার করে হংকং থেকে চীনের প্রধান ভূখণ্ডে আসা-যাওয়া করা হয়। মূলত হংকংয়ে আসা চীনা পর্যটকদের বন্দি প্রত্যর্পণ বিল বিষয়ে জানাতেই তারা সেখানে জড়ো হন। গণতন্ত্রপন্থিরা চীনের নাগরিকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে মান্দারিন ভাষায় স্লোগান দেন এবং প্ল্যাকার্ড লিখে নিয়ে যান। বিক্ষোভকারীরা বলছেন গতকালের বিক্ষোভে ২ লাখ ৩০ হাজার মানুষ অংশ নেন। তবে পুলিশ বলছে, সে সংখ্যা ছিল ৫৬ হাজার।