বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন ধোনি!

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন ধোনি!

২০১৮ সালের ৫ আগস্ট নয়াদিল্লিতে মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে দেখা করে তার হাতে বিজেপির প্রচারপত্র তুলে দেন অমিত শাহ -সংগৃহীত

চলতি বিশ্বকাপের পরই ক্রিকেটকে বিদায় জানাতে পারেন ক্রিকেট বিশ্বে 'মিস্টার কুল' হিসেবে নন্দিত মহেন্দ্র সিং ধোনি। আর অবসরের ঘোষণার পরই ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক এ অধিনায়ক বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলে দলটির এক শীর্ষ নেতা জানিয়েছেন। এর আগে ২০১৮ সালের পাঁচ আগস্ট বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ ধোনির সঙ্গে নয়াদিল্লিতে দেখা করেন। সে সময় দলের 'সম্পর্কের জন্য সমর্থন' প্রচারাভিযানের অংশ হিসেবে তার সঙ্গে নিজে গিয়ে কথা বলেন বিজেপি সভাপতি। তখন তার হাতে বিজেপির প্রচারপত্র তুলে দেন তিনি। খবর পিটিআইর।

লোকসভা নির্বাচনে বাজিমাত করার পর এবার বিজেপির লক্ষ্য বিধানসভা জয়। সামনে দেশজুড়ে একের পর এক বিধানসভা নির্বাচন। সে লক্ষ্যে রণকৌশল সাজাচ্ছে বিজেপি। আসন্ন ঝাড়খন্ড বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে রণনীতি তৈরি করতে শুরু করেছেন বিজেপি নেতারা। সম্প্রতি এ নিয়ে বিজেপির শীর্ষ পর্যায়ের এক বৈঠকে উঠে এসেছে ধোনির নাম। খনিজসমৃদ্ধ রাজ্যটিতে ধোনিকেই সামনের সারিতে রেখে গেরুয়াঝড় তুলতে চায় নরেন্দ্র মোদির দল।

ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর পরই ধোনিকে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দিতে মুখিয়ে আছে দলটি। ঝাড়খন্ডে আরজেডি ও জেএমএমের মতো স্থানীয় জনপ্রিয় রাজনৈতিক দলগুলোকে কুপোকাত করতে ধোনির মতো সফল ও নন্দিত ব্যক্তির ওপরই ভরসা রাখতে চাইছেন তারা।

নিয়ম মেনে চলতি বছরের ডিসেম্বরে ঝাড়খন্ডে নির্বাচন হওয়ার কথা। তবে অক্টোবরে হরিয়ানা ও মহারাষ্ট্রে নির্বাচনের সঙ্গে ঝাড়খন্ডেও নির্বাচন করাতে পারে কমিশন।

ধোনিকে দলে টানতে এরই মধ্যে তার সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছেন বিজেপি নেতারা। বিজেপির অন্দরমহল থেকে জানা যায়, ক্রিকেট বিশ্বকাপ শেষ হলেই অবসর নেবেন ধোনি। তার পরই আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দেবেন বিজেপিতে। তাদের ধারণা, বিজেপির প্রস্তাবে সাড়া দেবেন ভারতের এই বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক।

লন্ডনে বসে ধোনি যতই বলুন, 'কবে অবসর নেব জানি না।' তবে বিজেপির এক শীর্ষনেতা জানান, 'আমরা সাবেক অধিনায়কের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার ঘোষণার পর তিনি বিজেপিতেই যোগ দেবেন। দিনক্ষণও ঠিক করবেন তিনিই।'

এর আগে লোকসভা নির্বাচনে দিল্লির একটি আসনে হঠাৎ বিজেপি থেকে প্রার্থী হয়ে সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের আরেক সাবেক অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর। তিনি এখন পুরোদস্তুর রাজনীতিক।