ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের বার্তায় পূর্ণ সমর্থন

তেরেসাকে একহাত নিলেন ট্রাম্প

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০১৯      

সমকাল ডেস্ক

ওয়াশিংটনে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত কিম ড্যারোচের ফাঁস হওয়া ই-মেইল বার্তার প্রতি যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে পূর্ণ আস্থা প্রকাশ করায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের তোপের মুখে পড়েছেন। একের পর এক টুইটে ট্রাম্প ব্রেক্সিট ইস্যুতে ব্যর্থতার জন্য মেকে দায়ী করে একহাত নিয়েছেন। পাশাপাশি তিনি স্বস্তি প্রকাশ করে বলেছেন, মের মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে এবং ব্রিটেন একজন ভালো প্রধানমন্ত্রী পেতে যাচ্ছে। এদিকে হোয়াইট হাউসে সোমবার কাতারের আমিরের সম্মানে দেওয়া হোয়াইট হাউসের ডিনারে ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। খবর বিবিসি ও ডেইলি মেইলের।

ট্রাম্পকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের মূল্যায়ন-সংক্রান্ত ই-মেইল ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর বেশ কিছু ই-মেইলে ড্যারোচের মন্তব্য ও মূল্যায়নের প্রতিক্রিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আর কাজ করবেন না বলার পর যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় রাষ্ট্রদূতকে নিয়ে তাদের অবস্থান আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে বলেন, তিনি রাষ্ট্রদূতকে সমর্থন করছেন। কারণ রাষ্ট্রদূত তার ওপর অর্পিত কাজের অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপারে তার মূল্যায়ন জানিয়েছে। সেটা কারও হয়তো পছন্দ নাও হতে পারে।