সরকারি চাকরি ছেড়ে কাশ্মীরিদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৯      

সমকাল ডেস্ক

ভারতশাসিত কাশ্মীরকে অবরুদ্ধ করে রাখায় এবং সেখানকার মানুষের মৌলিক অধিকারহরণের প্রতিবাদে পদত্যাগ করেছেন এক সরকারি কর্মকর্তা। অনেক কষ্টে সোনার হরিণের মতো পাওয়া অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অফিসার (আইএএস) পদের চাকরিটি তিনি প্রতিবাদ করতে গিয়েই ছেড়ে দিলেন। এই কর্মকর্তার নাম কান্নান গোপীনাথান। বয়স ৩৩ বছর। খবর এনডিটিভি ও এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের।

এ মাসের শুরুতে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করা হয়। দেশটির সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর দ্বিখণ্ডিত জম্মু ও কাশ্মীরে কারফিউ জারি করা হয় এবং টেলিযোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রাখা হয়। এ কারণে ২০ দিন ধরে কাশ্মীর অবরুদ্ধ। এই তিন সপ্তাহে রাজ্যের বাইরের কোনো রাজনৈতিক দলের নেতাকে উপত্যকায় ঢুকতে দেওয়া হয়নি। রাজ্যের সাবেক মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে সব দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, অবরুদ্ধ কাশ্মীরিদের জন্য সহানুভূতি প্রকাশ করেছেন গোপীনাথান। সেইসঙ্গে তিনি এ বিষয়ে ভারতের অন্য অঞ্চলের মানুষের কোনো প্রতিবাদ ও ভ্রুক্ষেপ না থাকা নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, 'আমার পদত্যাগের কোনো মূল্য না থাকলেও বিবেকের কাছে আমি জবাব দিতে পারব।' বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক পদে দায়িত্ব পালন করেছেন গোপীনাথান। পদত্যাগের আগে তিনি ভারতের পশ্চিমাঞ্চলের জেলা দাদরা ও নগর হাভেলিতে (মহারাষ্ট্র ও গুজরাট রাজ্যের মাঝে) একটি গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরে সচিব পদে ছিলেন। টানা সাত বছর চাকরি করার পর ২১ আগস্ট পদত্যাগপত্র জমা দেন গোপীনাথান।