আমাজন যখন পুড়ছে বোলসোনারো তখন...

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৯      

সমকাল ডেস্ক

আমাজন যখন পুড়ছে বোলসোনারো তখন...

শুক্রবার রাতে ব্রাসিলিয়ায় কমেডি শো উপভোগের আগে কমেডিয়ানের সঙ্গে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো ও তার স্ত্রী মিশেল- সংগৃহীত

আমাজন পুড়ছে মানে পৃথিবীর ফুসফুস পুড়ছে। বিশ্বজোড়া মানুষের উদ্বেগের শেষ নেই এতে। কিন্তু তাতে কী? ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো তো বেশ আমোদেই আছেন। গত শুক্রবার তিনি ব্রাসিলিয়ার একটি কমেডি শোতে হাজির হয়েছিলেন একটু 'ঝরঝরে মেজাজ' বানাতে। ৬৮ খ্রিষ্টাব্দে রোম পুড়ে যাওয়ার সময় সম্রাট নিরো হয়তো এভাবেই সঙ্গীতের মূর্ছনায় মগ্ন ছিলেন।

শুক্রবার রাতে আমাজনের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কীভাবে সেনাবাহিনীকে ব্যবহার করা হবে, সে বিষয়ে বিস্তর বর্ণনা দেন বোলসোনারো। তার এ বক্তব্য টেলিভিশনেও প্রচারিত হয়। তবে সে বক্তব্য আগে থেকেই রেকর্ড করা ছিল। তার সেই আগে থেকেই রেকর্ড করা বক্তব্যটি যখন সম্প্রচার করা হচ্ছিল, তখন বোলসোনারো ব্রাসিলিয়ায় উপভোগ করছিলেন জনাথন নিমারের কৌতুক। কয়েক মাইল দূরেই তখন পুড়ছিল আমাজন। জনাথন নিমার একজন ডানপন্থি কমেডিয়ান।

আমাজনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড নিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় বিশ্ববাসী। আগুন নিয়ন্ত্রণে ব্রাজিল সরকারের নিষ্ফ্ক্রিয়তার প্রতিবাদে বিশ্বের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ করছে মানুষ। দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারলে দক্ষিণ আমেরিকান বাণিজ্যিক জোটের সঙ্গে বাণিজ্য বন্ধের হুমকি দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এ নিয়ে জি-৭ সম্মেলনেও আলোচনা হয়েছে। ব্রাজিল সরকারের ওপর চাপ বাড়ছে। তখন ব্রাজিলের সংবাদপত্রগুলো জানাল, চাপ কমাতেই নিমারের কৌতুকের অনুষ্ঠানে হাজির হন বোলসোনারো। প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো এবং ফার্স্ট লেডি মিশেলের সঙ্গে হাস্যোজ্জ্বল একটি ছবিও ইনস্টাগ্রামে প্রকাশ করেছেন নিমার। প্রকাশিত এক ভিডিওতে দেখা যায় নিমার বলছেন, 'ব্রাসিলিয়ায় অনুষ্ঠান করাটা সবসময়ের জন্য আনন্দের। কিন্তু আজকে আমাদের সঙ্গে বিশেষ কেউ উপস্থিত আছেন... তিনি হলেন বোলসোনারো।' এরপরই বোলসোনারোর সমর্থকরা স্লোগান দিতে থাকেন। এর আগেও, বিশেষ করে গত বছর ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বোলসোনারোর পক্ষে প্রচারণায় নিমারকে তৎপর দেখা গেছে। এক অনুষ্ঠানে তিনি বামপন্থি প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ফার্নান্দো হাদ্দাদকে উদ্দেশ করে বলেছিলেন, তার ওপর 'শয়তান' লুলা দ্য সিলভার (ব্রাজিলের সাবেক বামপন্থি প্রেসিডেন্ট) আত্মা ভর করেছে।

শনিবার বোলসোনারোর প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও পরিবেশমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করে ব্যাখ্যা দিয়েছেন কীভাবে সেনা মোতায়েন করে আমাজনের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হবে। এ জন্য তারা আশপাশের রাষ্ট্রগুলোর সহায়তা চেয়েছেন। আর আন্তর্জাতিক চাপের মুখে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভক্ত হিসেবে পরিচিত বোলসোনারো বলেছেন, 'আমাজনের আগুন ব্রাজিলের অভ্যন্তরীণ বিষয়। ফলে এটি নিয়ে কারও নাক গলানো সহ্য করা হবে না।' সূত্র :দ্য গার্ডিয়ান।