জনসনের প্রস্তাবে কাজ হবে না :ইইউ

প্রকাশ: ০৪ অক্টোবর ২০১৯

সমকাল ডেস্ক

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ব্রেক্সিট বিষয়ে সর্বশেষ যে প্রস্তাব দিয়েছেন, তাতে কোনো কাজ হবে না বলে জানিয়েছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতারা। বুধবার জনসন বিতর্কিত 'ব্যাকস্টপ' প্রস্তাব বাদ দিয়েই ব্রাসেলসে ব্রেক্সিট প্রস্তাব পাঠিয়েছিলেন। তবে গতকাল বৃহস্পতিবার ইইউ নেতারা তার প্রস্তাব সরাসরি নাকচ করে দেন। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

৩১ অক্টোবর ব্রিটেনের ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার সর্বশেষ নির্ধারিত সময়। এর মধ্যে দুই পক্ষের মধ্যে কাঙ্ক্ষিত চুক্তি সম্পন্ন না হলে ব্রেক্সিট স্বয়ংক্রিয়ভাবেই কার্যকর হয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রী চুক্তি ছাড়াই ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর হলেও তার নিজ দলের কিছু সদস্য এবং বিরোধীদলীয় সদস্যরা তার সঙ্গে একমত হচ্ছেন না। জনসন নানাভাবে তার ইচ্ছা বাস্তবায়িত করতে চাইলেও খুব একটা সুবিধা করতে পারছেন না। কারণ, পার্লামেন্টে সদ্য পাস হওয়া একটি আইন তার ইচ্ছাপূরণে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বুধবার ম্যানচেস্টারে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির পাঁচ দিনব্যাপী বার্ষিক সম্মেলনের শেষ দিনে তিনি বিতর্কিত 'ব্যাকস্টপ' প্রস্তাব বাদ দিয়েই ব্রাসেলসে ব্রেক্সিট প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে জানান। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন নেতারা তার সর্বশেষ প্রস্তাবে একমত হতে পারেননি।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগ করার ব্যাপারে ব্রিটেনের সামনে আর এক মাস সময়ও নেই। এ অবস্থায় দুই পক্ষই প্রস্তুত ব্রেক্সিটে আরও কিছু সময় বিলম্ব করতে অথবা চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট কার্যকর করতে। জনসন বলেছেন, তিনি চুক্তিতে অসম্মত নন। তবে ব্রেক্সিটের তারিখ কিছুতেই ৩১ অক্টোবর থেকে পেছানো যাবে না। জনসনের প্রস্তাব ব্রাসেলসে গৃহীত না হওয়ার ঘটনা থেকে বোঝা যাচ্ছে, একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র হওয়া সত্ত্বেও ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়াটা ব্রিটেনের পক্ষে কতটা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।