যুক্তরাষ্ট্রে সংক্রমণের কেন্দ্রে এখন নিউইয়র্ক

প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে আশাবাদী ট্রাম্প

প্রকাশ: ২৬ মার্চ ২০২০

সমকাল ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক রাজ্যের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, তার রাজ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বুলেট ট্রেনের গতির চেয়েও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। এ রাজ্য এখন সংক্রমণের কেন্দ্রে রয়েছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার এমন আশঙ্কা করে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে জরুরি চিকিৎসা সহায়তা চেয়েছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্রকে নিয়ে সতর্কবার্তা উচ্চারণ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সংস্থাটি বলেছে, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের পরবর্তী কেন্দ্র হতে পারে যুক্তরাষ্ট্র। তবে দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রাদুর্ভাব মোকাবিলার ব্যাপারে বড়ই আশাবাদী। আগামী এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র করোনাভাইরাসমুক্ত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। খবর রয়টার্স ও বিবিসির।

নিউইয়র্কের গভর্নর কুমো বলেছেন, 'আক্রান্তের সংখ্যা আমাদের আশঙ্কার চেয়ে বেশি। সংক্রমণের গতি আমাদের চিন্তার বাইরে।' তিনি অভিযোগ করেন, কেন্দ্রীয় সরকার নিউইয়র্কে মাত্র ৪০০ ভেন্টিলেটর পাঠিয়েছে। অথচ দরকার ৩০ হাজার ভেন্টিলেটর। নিউইয়র্কে বর্তমানে সাত হাজার ভেন্টিলেটর রয়েছে। শুধু এ রাজ্যটিতে ১৫ হাজারের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ও দুই শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এ অবস্থায় হোয়াইট হাউস থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, যারা নিউইয়র্কের ওপর দিয়ে অন্যত্র গেছেন কিংবা যারা রাজ্যটি থেকে অন্যত্র গেছেন তাদের বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

পুরো যুক্তরাষ্ট্রে ৫০ হাজারের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে প্রায় আটশ' জনের মৃত্যু হয়েছে। এমন অবস্থায় ডব্লিউএইচওর মুখপাত্র মার্গারেট হ্যারিস মঙ্গলবার বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার ব্যাপক হারে বেড়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে, এ ভাইরাস সংক্রমণের নতুন কেন্দ্র হয়ে উঠতে পারে যুক্তরাষ্ট্র। আগামী মাসে ব্যবসা-বাণিজ্য আবার স্বাভাবিক হবে- ট্রাম্পের এমন ঘোষণা আসার পরই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে এ আশঙ্কা ব্যক্ত করা হলো।