করোনাভাইরাসের টিকা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তার প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা দুই রকম কথা বলেছেন। নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের আগেই টিকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ট্রাম্প। অক্টোবরের মধ্যেই সে টিকা প্রস্তুত হয়ে যাবে বলে বুধবার ফের আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি। তবে তার বক্তব্যের সঙ্গে খোদ স্বাস্থ্য বিভাগই একমত নয়। ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন বলেছেন, ট্রাম্পের কথা এখন আর জনগণ বিশ্বাস করে না।

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের (সিডিসি) পরিচালক রবার্ট রেডফিল্ড বলেছেন, আগামী বছরের মাঝামাঝি সময়ে জনগণের জন্য করোনার টিকা সহজলভ্য হতে পারে। তবে সংক্রমণ রোধ করতে মাস্ক অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। এর প্রতিক্রিয়ায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, 'রেডফিল্ডের দেওয়া এ তথ্য ঠিক নয়।' এ সময় রেডফিল্ডকে 'বিভ্রান্ত' বলেও মন্তব্য করেন ট্রাম্প। এরপরই চলতি বছরের অক্টোবরের মধ্যে টিকা প্রয়োগ শুরু করা যাবে বলে ট্রাম্প আশাবাদ ব্যক্ত করেন। মাস্ক নিয়ে সিডিসি পরিচালকের বক্তব্য সঠিক নয় বলে মনে করেন তিনি।

বুধবার সিনেট শুনানিতে সিডিসি পরিচালক বৈজ্ঞানিক তথ্য-উপাত্ত হাজির করে বলেছিলেন, 'চলতি বছরের নভেম্বর-ডিসেম্বরে খুব সীমিত আকারে স্বাস্থ্যকর্মীসহ করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামনের সারিতে থাকা ব্যক্তিদের টিকা দেওয়া যেতে পারে। তবে আগামী বছর জুনের আগে যুক্তরাষ্ট্রে সবার জন্য টিকা কার্যক্রম চালু করা সম্ভব হবে না। কারণ, টিকা নিরাপদ প্রমাণ হওয়ার পরই তা জনসাধারণকে দেওয়া হবে।' ট্রাম্পের বক্তব্যের পর টুইটারে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন সিডিসি পরিচালক। করোনা প্রতিরোধে টিকাকে সবচেয়ে কার্যকর মনে করেন রেডফিল্ড। তবে হাত ধোয়া, মাস্ক পরা এবং সামাজিক দূরত্ব বিধির ওপরও জোর দিয়েছেন তিনি। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফুসি বলেছিলেন, কোনো টিকা ৫০ থেকে ৬০ শতাংশ কার্যকর হলেই সেটিকে সাফল্য মনে করা হবে।

করোনাভাইরাস যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের কেন্দ্রে জায়গা করে নিয়েছে। এ নিয়ে চলছে পাল্টাপাল্টি রাজনীতি। ট্রাম্পের রক্ষণশীল শিবির করোনাকে তেমন একটা পাত্তা না দিলেও টিকার রাজনীতিতে এগিয়ে থাকতে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে তারা। করোনা মোকাবিলায় ট্রাম্পের কোনো ব্যর্থতা নেই বলেও প্রচার চালাচ্ছে ট্রাম্পশিবির। যদিও বাস্তব চিত্র পুরোই ভিন্ন। করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় দুই লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আর একে নির্বাচনী হাতিয়ার বানিয়ে প্রচার চালাচ্ছেন ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বাইডেন।

টিকা নিয়ে ট্রাম্পের বক্তব্যের পর বাইডেন টুইটারে লিখেছেন, 'টিকা নিয়ে আমি বিজ্ঞানী-চিকিৎসকদের কথা বিশ্বাস করি, ট্রাম্পের কথা নয়। এর কিছুক্ষণ আগে বাইডেন বলেছিলেন, মহামারি মোকাবিলায় পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছেন ট্রাম্প।

মন্তব্য করুন