উত্তর কোরিয়া গত বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় রাতে এক কুচকাওয়াজে সাবমেরিন থেকে উৎক্ষেপণযোগ্য নতুন ধরনের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের (এসএলবিএম) প্রদর্শন করেছে। গতকাল শুক্রবার দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম সূত্রে এ কথা জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অভিষেকের কয়েকদিন আগে দেশটি কুচকাওয়াজের মাধ্যমে তাদের সামরিক শক্তির এ প্রদর্শনী করল। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম নতুন এ ক্ষেপণাস্ত্রকে 'বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র' হিসেবে অভিহিত করেছে। বৃহস্পতিবার পিয়ংইয়ংয়ের কিম ইল সুং চত্বরে হওয়া কুচকাওয়াজে নতুন ধরনের এ ক্ষেপণাস্ত্রের কয়েকটি প্রদর্শনী করা হয়। গণমাধ্যমে প্রকাশিত কিছু ছবিতে চামড়ার তৈরি কোট ও টুপি পরা দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনকে অনুষ্ঠানে হাসতে ও হাত নাড়তে দেখা যায়।

ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির পঞ্চবার্ষিকী কংগ্রেসের পর এ প্রদর্শনীতে দলের কয়েক হাজার প্রতিনিধির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে কিম জং উন যুক্তরাষ্ট্রকে তার দেশের সবচেয়ে বড় শত্রু হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তবে তিনি এটাও বলেছেন যে তিনি কূটনীতিকেও বাদ দিতে চান না। কুচকাওয়াজে সারি বেঁধে মহড়ায় অংশ নেন সেনাবাহিনীর হাজার হাজার সদস্য। এ সময় তাদের কারও মুখে মাস্ক দেখা যায়নি। প্রদর্শন করা হয় ট্যাঙ্ক ও রকেট লঞ্চারসহ বিভিন্ন ধরনের সমরাস্ত্র। শেষ দিকে দেখানো হয় নতুন ধরনের স্বল্পপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও এসএলবিএম। খবর এএফপির।

মন্তব্য করুন