যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের স্ত্রীকে বলা হয় ফার্স্টলেডি আর ভাইস প্রেসিডেন্টের স্ত্রীকে ডাকা হয় সেকেন্ড লেডি। তবে এবার সেকেন্ড লেডি বলে কেউ থাকছেন না। যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম নারী, কৃষ্ণাঙ্গ এবং দক্ষিণএশীয় বংশোদ্ভূত ভাইস প্রেসিডেন্ট হয়ে আগেই ইতিহাস গড়েছেন কমলা হ্যারিস। তার পাশাপাশি দেশটির ইতিহাসে প্রথম 'সেকেন্ড জেন্টলম্যান' হলেন কমলার স্বামী ডগলাস এমহফ। জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট হওয়ায় ফার্স্টলেডি হচ্ছেন তার স্ত্রী জিল বাইডেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকেই এমহফ তার এই নতুন ভূমিকা নিয়ে টুইট করেছিলেন। এতে তিনি লিখেছেন, 'সামনের দিন এগিয়ে আসছে, আমিও সেকেন্ড জেন্টলম্যানের নতুন ভূমিকা নিতে প্রস্তুত। আমার দায়িত্ববোধও আছে। কিন্তু আমি জানি পরিবার, বন্ধুবান্ধবসহ আরও অনেকের সমর্থন ছাড়া আমরা আজ এখানে আসতে পারতাম না। সামনের অধ্যায়ে পা বাড়ানোর আগে আমাদের এই সমর্থনের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।'

এমহফ একজন আইনজীবী। ২০১৪ সালে কমলা হ্যারিস ও ডগলাস এমহফের বিয়ে হয়। এটি কমলা হ্যারিসের প্রথম বিয়ে হলেও ডগলাসের দ্বিতীয় বিয়ে ছিল। এমহফের জন্ম নিউইয়র্কে। তবে তিনি নিউ জার্সি এবং লস অ্যাঞ্জেলেসে বেড়ে উঠেছেন। এমহফের আগের পক্ষের দুই সন্তান রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পরই কমলা তার কোটি ইনস্টাগ্রাম অনুসারীর কাছে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন স্বামীকে। আর এমহফও সবসময়ই হ্যারিসকে তার ক্যারিয়ার এগিয়ে নিতে সমর্থন, সহযোগিতা করে এসেছেন; বিশেষ করে তার নির্বাচনে লড়ার সময়। খবর সিএনএনের।

মন্তব্য করুন