মিয়ানমারে গত ফেব্রুয়ারিতে সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে দেশটিতে সেনা শাসন চলছে। জান্তার হেফাজতে দেশটির গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চির রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) দু'জন কর্মকর্তার 'রহস্যজনক' মত্যু হয়েছে। এক বিশেষ প্রতিবেদনে এনএলডির এ দুই কর্মকর্তার রহস্যজনক মৃত্যুর বিষয়টি খতিয়ে দেখেছেন বিবিসির দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সংবাদদাতা জনাথন হেড। এদিকে সু চির বিরুদ্ধে ১১ কেজি স্বর্ণ ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে মামলা করেছে জান্তা সরকার। গতকাল বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। খবর এএফপি ও বিবিসির।\হগত ৬ মার্চ রাতে খিন মং লাট তার বাড়িতেই ছিলেন। রাত ৯টার কিছু পরে তার বাসায় পুলিশ ও সেনারা হানা দেয়। এ সেনারা ৭৭তম লাইট ইনফ্যান্ট্রি ডিভিশনের সদস্য ছিলেন বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা। মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য এ ডিভিশনের কুখ্যাতি রয়েছে।

খিনের বন্ধু কো তুন কাই জানান, পুলিশ ও সেনারা খিনের বাড়িতে ঢুকে তাকে টেনেহিঁচড়ে বাইরে নিয়ে আসে। লাথিসহ নানাভাবে আঘাত করে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। পরদিন সকালে খিনের পরিবার পুলিশের কাছ থেকে লাশ নিয়ে যাওয়ার ফোন পায়।\হখিনের মৃত্যুর দু'দিন পর এনএলডির আরেক কর্মকর্তা জ মিয়াত লিনের মৃত্যু হয়। সামরিক জান্তা যে সু চির দলকে নিশানা করে অভিযান চালাচ্ছে- এ ঘটনা সে তত্ত্বকে আরও জোরদার করে। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, এনএলডির এ দুই কর্মকর্তা কেন এমন নৃশংসতার শিকার হলেন, তা জানা যায়নি। তবে তথ্যপ্রমাণ ও আলামতে এ বিষয়টি স্পষ্ট- তাদের হত্যা করা হয়েছে।

সামরিক বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ১২ :মিয়ানমারের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মান্দালয়ের কাছে একটি সামরিক বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১২ জন নিহত হয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক পোস্টে শহরটির দমকল বিভাগ এ দুর্ঘটনার কথা জানিয়েছে।

বিষয় : মিয়ানমার পরিস্থিতি

মন্তব্য করুন