জগদ্বিখ্যাত যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যাচু অব লিবার্টি। ঢিলেঢালা সবুজাভ গাউন পরে থাকা এক নারীর ভাস্কর্যকে 'লেডি লিবার্টি' বলা হয়। তার বাঁ-হাতে একটি বই। তাতে রোমান ভাষায় খোদাই করে লেখা যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতার দিনক্ষণ- ৪ জুলাই ১৭৭৬ সাল। ডান হাতে উঁচিয়ে ধরা একটি মশাল। দেশটির ইতিহাস ও ঐতিহ্যের সঙ্গে মিশে আছে এটি। যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতার শতবর্ষ পূর্তিতে এটি উপহার দেয় ফ্রান্স। এবার দেশটিকে আরও একটি স্ট্যাচু অব লিবার্টি পাঠাতে যাচ্ছে ফ্রান্সই। তবে একে আখ্যায়িত করা হচ্ছে মূল স্ট্যাচু অব লিবার্টির 'ছোট বোন' বা রেপ্লিকা হিসেবে।

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদার করার উদ্দেশে প্যারিসের একটি জাদুঘরের মাধ্যমে স্ট্যাচুটি পাঠাচ্ছে ফ্রান্স সরকার। প্রথমে এটি এলিস দ্বীপে প্রদর্শিত হবে। সেখান থেকে নেওয়া হবে ওয়াশিংটন ডিসিতে, যেখানে ভাস্কর্যটি ১০ বছর রাখা হবে।

দ্বিতীয় এই স্ট্যাচু অব লিবার্টি এখন প্যারিস থেকে আটলান্টিক হয়ে নিউইয়র্কের পথে পথে রয়েছে। আশা করা হচ্ছে, আগামী ৪ জুলাই স্বাধীনতা দিবসের আগেই এটি যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছাবে। লেডি লিবার্টি উপহার দেওয়ার ১৩৫তম বছরও এটি। তামার তৈরি মূল ভাস্কর্যটির উচ্চতা ৯২ দশমিক ৯৯ মিটার। তবে রেপ্লিকাটির উচ্চতা হবে ২ দশমিক ৮৩ মিটার। দুই সপ্তাহ আগে এটিকে বেশ যত্ন করে জাহাজে প্যারিস থেকে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে পাঠানো হয়। পরিবহনের সময় যেন কোনোভাবে মূল কাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেদিকে বিশেষ নজর রাখা হয়েছে। সুরক্ষার জন্য প্লাস্টিক ফিল্ম ও ফোম দিয়ে মুড়ে দেওয়া হয়েছে এটি।

বিষয় : 'ছোট বোন' স্ট্যাচু অব লিবার্টির 'ছোট বোন'

মন্তব্য করুন