মিশ্র প্রতিষেধকের কার্যকারিতা নিয়ে গবেষণা চলছে। এর মধ্যেই দুটি পৃথক কোম্পানির টিকা নিলেন জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল। করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ হিসেবে মডার্নার টিকা নিলেন তিনি। প্রথম ডোজ হিসেবে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা গ্রহণ করেছিলেন। জার্মান সরকারের একজন মুখপাত্র এ তথ্য জানিয়েছেন। তবে দু'রকমের টিকা নেওয়ার পর তার শরীরে কোনো রকম সমস্যা দেখা দেয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি। গত মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়।

অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নেওয়ার পর কিছু ক্ষেত্রে রক্ত জমাট বাঁধার মতো সমস্যা দেখা গেছে। সে ক্ষেত্রে ষাটোর্ধ্বদের ঝুঁকি রয়েছে বলে মনে করছেন গবেষকরা। ৬৬ বছর বয়সী মেরকেল এমনিতেই দীর্ঘ সময় অসুস্থ ছিলেন। এখন সুস্থ হয়ে উঠলেও চিকিৎসকদের পরামর্শেই তিনি দ্বিতীয়বার অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বলে জানা গেছে। দেশটির প্রবীণ মানুষদের অনেকেই প্রথমবার অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিলেও দ্বিতীয়বার ফাইজার বা মডার্নার টিকা নিচ্ছেন। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, টিকার ডোজ মেশানোর ধারণাটা ভালো, তবে এর কার্যকারিতা নিশ্চিত করে বলার মতো সময় আসেনি। অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকায় রক্ত জমাট বাঁধায় গত মার্চে জার্মানিসহ ইউরোপের দেশগুলো এ টিকা দেওয়া বন্ধ করেছিল।

কভিডের মিশ্র টিকা করোনার বিরুদ্ধে কতটা কার্যকরী, তা নিয়ে গোটা বিশ্বেই গবেষণা চলছে। তবে বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, দু'বার দু'রকমের টিকা নিলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। খবর বিবিসির।

বিষয় : মডার্নার টিকা মেরকেল

মন্তব্য করুন