আফগানিস্তান নিয়ে রাশিয়ার ডাকা আন্তর্জাতিক বৈঠকে যোগ দিচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্র। আজ বুধবার আফগানিস্তানে ক্ষমতাসীন তালেবান, চীন ও পাকিস্তানের সঙ্গে রাশিয়া আলোচনা করবে। মস্কোয় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। আফগানিস্তান-বিষয়ক যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ দূত জালমে খলিলজাদ পদত্যাগ করছেন। গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর এ তথ্য জানিয়েছে। এদিকে আফগানিস্তানের জব্দ করা অর্থ ছাড়ের জন্য বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তালেবান সরকারের সঙ্গে যুক্ত থাকতে এবং সম্ভাব্য 'অর্থনৈতিক ধস' ঠেকাতে জরুরি ভিত্তিতে দেশটিতে মানবিক সহায়তা দেওয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। পাকিস্তানের নারী শিক্ষা অধিকারকর্মী এবং শান্তিতে নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাই আফগানিস্তানের মেয়েদের স্কুলে ফিরতে দেওয়ার জন্য আফগান নতুন শাসকগোষ্ঠী তালেবানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

স্থানীয় সময় সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নেড প্রাইস জানিয়েছেন, রাশিয়ার উদ্যোগে আয়োজিত ওই আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্র থাকবে না। তিনি বলেন, 'আমরা মস্কো আলোচনায় অংশ নেব না। রাশিয়ার সঙ্গে তিন দেশের কথা হবে। আমরা চাই, এ ফোরাম কথাবার্তা এগিয়ে নিয়ে যাক। কিন্তু আমরা বুধবারের আলোচনায় অংশ নেওয়ার পরিস্থিতিতে নেই।' রুশ প্রেসিডেন্ট ভদ্মাদিমির পুতিনের বিশেষ দূত জামির কাবুলভ জানিয়েছেন, আফগানিস্তান নিয়ে একটি সাধারণ অবস্থান নেওয়াই হলো এ আলোচনার লক্ষ্য। এদিকে পাকিস্তানে নিযুক্ত বিদায়ী জাপানি রাষ্ট্রদূত কুনিনোরি মাতসুদার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে আফগানিস্তানের জব্দ করা অর্থ ছাড়ের জন্য বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এ সময় তিনি আফগানিস্তানে অন্তর্ভুক্তিমূলক একটি রাজনৈতিক কাঠামোর গুরুত্বের কথাও তুলে ধরেন। খবর এএফপি, রয়টার্স ও আলজাজিরার।

মন্তব্য করুন