চেক প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্ট মিলোস জেমান করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এখন তিনি কোয়ারেন্টাইনে আছেন। এ অবস্থায় স্থানীয় সময় রোববার একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে হয় তাকে। দশটির মধ্য ডানপন্থি জোটের নেতা পেট্র ফিয়ালাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন তিনি। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে একটি কাচঘেরা বাক্সে বসে নিয়োগপত্রে স্বাক্ষর করেন প্রেসিডেন্ট। খবর রয়টার্সের।

ফিয়ালা পাঁচটি মধ্য ও মধ্য ডানপন্থি দলের জোটের নেতৃত্বে রয়েছেন। অক্টোবরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জয় পায় এই জোট। পরাজিত হন বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী আন্দ্রেজ বাবিস। নতুন প্রধানমন্ত্রী ফিয়ালা আগামী মাসের মাঝামাঝি তার মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়োগ দেবেন। রোববার ফিয়ালাকে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগের অনুষ্ঠানে হুইলচেয়ারে অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রেসিডেন্ট মিলোস। সঙ্গে ছিলেন সুরক্ষা পোশাক পরা একজন চিকিৎসক। মিলোসের মুখে ছিল মাস্ক। অনুষ্ঠানে মিলোস কাচঘেরা একটি বাক্সের ভেতরে বসে প্রধানমন্ত্রী নিয়োগের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। অন্য অসুস্থতায় প্রায় ছয় সপ্তাহ হাসপাতালে ছিলেন মিলোস। পরে তিনি করোনা সংক্রমিত হন।

সংবাদ সম্মেলনে ফিয়ালা বলেন, নতুন সরকারের সামনে অনেক চ্যালেঞ্জ রয়েছে। তার সরকার পরিবর্তনের লক্ষ্যে কাজ করবে। চেক প্রজাতন্ত্রে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। ফিয়ালা সরকারকে করোনভাইরাসের সংক্রমণের নতুন ঢেউ মোকাবিলা করতে হবে।

মন্তব্য করুন