চাকরি নিয়ে

চাকরি নিয়ে

প্রধান নকশাবিদ থেকে মাস্টার ক্রাফটসম্যান

বিসিকে ২৬ পদে ৫৩ নিয়োগ

প্রকাশ: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৬

মারশিয়া মেহনাজ

শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনে [বিসিক] ২৬টি স্থায়ী পদ পূরণের জন্য অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হবে ৫৩ জনকে। এ সংক্রান্ত একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত হয়েছে সমকালে। চলুন, জেনে নিই বিস্তারিত-
পদ ও যোগ্যতা
প্রধান নকশাবিদ পদে ৫০,০০০-৭১,২০০ টাকা [চতুর্থ গ্রেড] বেতন কাঠামোতে নিয়োগ দেওয়া হবে একজনকে। বয়সসীমা অনূর্ধ্ব ৩৯ বছর [তবে অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে ৪২ বছর পর্যন্ত]। শিক্ষাগত যোগ্যতা- ফাইন আর্টসে দ্বিতীয় শ্রেণীর ডিগ্রি [মাস্টার্স ডিগ্রি অগ্রাধিকার]। অভিজ্ঞতা- সংশ্লিষ্ট কাজে ১২ বছর। একই বয়সসীমায় ঊর্ধ্বতন অনুষদ সদস্য পদে নিয়োগ দেওয়া হবে দু'জনকে। বেতন কাঠামো- ৪৩,০০০-৬৯,৮৫০ টাকা [পঞ্চম গ্রেড]। শিক্ষাগত যোগ্যতা- দ্বিতীয় শ্রেণীর মাস্টার্স ডিগ্রি অথবা দ্বিতীয় শ্রেণীর বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি [সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রশিক্ষণ/ডিপ্লোমা অথবা পিএইচডি ডিগ্রি অতিরিক্ত যোগ্যতা হিসেবে গণ্য হবে]। অভিজ্ঞতা- সংশ্লিষ্ট বিষয়ে তিন বছরসহ মোট ১০ বছরের অভিজ্ঞতা; তবে পিএইচডি ডিগ্রিধারীদের ক্ষেত্রে তিন বছরের অভিজ্ঞতা শিথিল করা যেতে পারে। এই পদটির ক্ষেত্রে গাজীপুর, নওগাঁ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও রংপুর জেলার প্রার্থীদের আবেদন গ্রহণযোগ্য হবে না।
সহকারী প্রধান নকশাবিদ পদে নিয়োগ হবে একটি। বেতন কাঠামো- ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা [ষষ্ঠ গ্রেড]। বয়সসীমা- অনূর্ধ্ব ৩৪ বছর; তবে বিশেষ অভিজ্ঞদের ক্ষেত্রে ৩৭ বছর পর্যন্ত। শিক্ষাগত যোগ্যতা-- ফাইন আর্টসে দ্বিতীয় শ্রেণীর স্নাতক ডিগ্রি। অভিজ্ঞতা- সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে তিন বছরসহ মোট সাত বছর। এ পদে ফেনী ও গোপালগঞ্জ জেলার কেউ আবেদন করতে পারবেন না।
২২,০০০-৫৩,০৬০ টাকা [নবম গ্রেড] বেতন স্কেলে চারটি নিয়োগ দেওয়া হবে সহকারী অনুষদ সদস্য পদে। বয়সসীমা- অনূর্ধ্ব ৩০ বছর। প্রার্থীকে দ্বিতীয় শ্রেণীর মাস্টার্স ডিগ্রি অথবা দ্বিতীয় শ্রেণীর বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিধারী হতে হবে। অভিজ্ঞতা চাওয়া না হলেও, কিশোরগঞ্জ জেলার প্রার্থীদের আবেদন গ্রহণযোগ্য হবে না। একই বেতন কাঠামোতে একই শিক্ষাগত যোগ্যতার অধিকারীরা আবেদন করতে পারবেন প্রশাসনিক কর্মকর্তা [মুক্তিযোদ্ধা কোটা] পদে একটি ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা পদে তিনটি নিয়োগের বিপরীতে। মুক্তিযোদ্ধা কোটায় বয়সসীমা অনূর্ধ্ব ৩২ বছর আর সাধারণ কোটায় অনূর্ধ্ব ৩০ বছর। তবে এক্ষেত্রে লালমনিরহাট ও খুলনা জেলার প্রার্থীদের আবেদন করার প্রয়োজন নেই।
লাইব্রেরিয়ান পদে ২২,০০০-৫৩,০৬০ টাকা [নবম গ্রেড] বেতন কাঠামোতে নিয়োগ হবে একটি। বয়সসীমা- অনূর্ধ্ব ৩০ বছর। শিক্ষাগত যোগ্যতা- লাইব্রেরি সায়েন্স/ ডকুমেন্টেশনে দ্বিতীয় শ্রেণীতে মাস্টার্স ডিগ্রি। অভিজ্ঞতা- সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে এক বছর। একই বেতন কাঠামোতে প্রমোশন অফিসার [মুক্তিযোদ্ধা কোটা] পদে আটটি ও প্রমোশন অফিসার পদে চারটি নিয়োগ দেওয়া হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতা- দ্বিতীয় শ্রেণীতে মাস্টার্স অথবা বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি। মুক্তিযোদ্ধা কোটায় বয়সসীমা অনূর্ধ্ব ৩২ বছর ও সাধারণ কোটায় অনূর্ধ্ব ৩০ বছর। তবে এই পদ দুটিতে বগুড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, টাঙ্গাইল, সাতক্ষীরা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, পাবনা, ময়মনসিংহ, চাঁদপুর, নরসিংদী, রাজবাড়ী, মানিকগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, নাটোর, শরীয়তপুর, ফরিদপুর, জামালপুর, কুষ্টিয়া ও জয়পুরহাটের প্রার্থীদের আবেদন গ্রহণযোগ্য হবে না। একই শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রার্থীদের একই বেতন কাঠামোতে, একই বয়সসীমায় নিয়োগ দেওয়া হবে জরিপ ও তথ্য কর্মকর্তা [মুক্তিযোদ্ধা কোটা] পদে একটি এবং জরিপ ও তথ্য কর্মকর্তা পদে দুটি। এক্ষেত্রে নওগাঁ, কুড়িগ্রাম, কুমিল্লা, টাঙ্গাইল, গাইবান্ধা, কুষ্টিয়া, কিশোরগঞ্জ, জয়পুরহাট, পঞ্চগড় ও যশোর জেলার প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন না।
হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা [মুক্তিযোদ্ধা কোটা] পদে তিনটি ও হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা পদে একটি নিয়োগ দেওয়া হবে হিসাববিজ্ঞান/ব্যাংকিং/ ফিন্যান্স/ব্যবসাপ্রশাসন/অর্থনীতি/পরিসংখ্যান বিষয়ে দ্বিতীয় শ্রেণীতে মাস্টার্স ডিগ্রিধারী প্রার্থীদের। ব্রাহ্মণবাড়িয়া, পাবনা, যশোর, পিরোজপুর, কুড়িগ্রাম, বরিশাল, সাতক্ষীরা ও কুমিল্লা জেলার প্রার্থীরা পদ দুটিতে আবেদন করতে পারবেন না। প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা পদে দুটি নিয়োগ হবে দ্বিতীয় শ্রেণীতে মাস্টার্স কিংবা বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিধারীদের। সিরাজগঞ্জ ও গাজীপুর জেলা বাদে অন্য যে কোনো জেলার প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন কর্মী ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা [মুক্তিযোদ্ধা কোটা] পদের একটি চাকরির জন্য। ফিন্যান্স অফিসার পদে একটি নিয়োগ পাবেন হিসাববিজ্ঞান/ ব্যাংকিং/ফিন্যান্স/ব্যবসা প্রশাসন/অর্থনীতি/ পরিসংখ্যান বিষয়ে দ্বিতীয় শ্রেণীতে মাস্টার্স ডিগ্রিধারী প্রার্থী। দ্বিতীয় শ্রেণীতে মাস্টার্স ডিগ্রি কিংবা বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রিধারী প্রার্থী নিয়োগ পাবেন ক্রেডিট অফিসার পদের একটি, ঊর্ধ্বতন সমন্বয় কর্মকর্তা পদের একটি [শরীয়তপুর জেলার প্রার্থী ব্যতীত], গবেষণা কর্মকর্তা পদের তিনটি, অ্যানালিস্ট পদের দুটি, প্রযুক্তি কর্মকর্তা পদের দুটি, মান নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা পদে একটি ও মার্কেটিং কর্মকর্তা পদের একটি চাকরিতে। অন্যদিকে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাড়া যে কোনো জেলার প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন ঊর্ধ্বতন নকশাবিদ পদের তিনটি চাকরির বিপরীতে। এ ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা- ফাইন আর্টসে দ্বিতীয় শ্রেণীর ডিগ্রি। আর উলি্লখিত পদগুলোর বেতন কাঠামো- ২২,০০০-৫৩,০৬০ টাকা [নবম গ্রেড]; এবং বয়সসীমা- মুক্তিযোদ্ধা কোটায় অনূর্ধ্ব ৩২ বছর ও সাধারণ কোটায় অনূর্ধ্ব ৩০ বছর।
এ ছাড়া সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে দ্বিতীয় শ্রেণীর ডিগ্রিধারী প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন নকশাবিদ পদে [ঢাকা, ময়মনসিংহ ও রাজশাহী জেলার প্রার্থীরা ছাড়া] ১২,৫০০-৩০,২৩০ টাকা [একাদশ গ্রেড] বেতন কাঠামোতে দুটি এবং মাস্টার ক্রাফটসম্যান পদের [নারায়ণগঞ্জ ও ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ার প্রার্থীরা ব্যতীত] ১১,০০০-২৬,৫৯০ টাকা [ত্রয়োদশ গ্রেড] বেতন কাঠামোতে একটি চাকরির জন্য। বয়সসীমা- অনূর্ধ্ব ৩০ বছর।
আবেদনের শর্ত ও নিয়ম
সরকারি প্রচলিত বিধিবিধান অনুযায়ী নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। http//bscic.teletalk. com.bd -এই ওয়েবসাইটে আবেদন ফর্ম পূরণ করতে হবে। আবেদনপত্র পূরণের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষার ফি জমা দিতে হবে। ১৪ মার্চ সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে আবেদনপত্র জমাদান সম্পন্ন করতে হবে।
বলে রাখা ভালো, আবেদন সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে, বিসিকের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট-www.bscic.gov.bd