চাকরি নিয়ে

চাকরি নিয়ে


সংবাদ উপস্থাপনায় ক্যারিয়ার

প্রকাশ: ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

জোহরা শিউলী

সংবাদ জগতের মানুষ হতে চায় অনেকেই। একটা স্বপ্ন থাকে সুন্দর করে সংবাদ পরিবেশনার। গণমাধ্যমে রেডিও-টিভিতে সংবাদ পাঠকে নিজের ক্যারিয়ার হিসেবে নেওয়ার চিন্তা যাদের, তারা ইচ্ছা করলেই এ পেশায় ভালো করতে পারবেন। কারণ ইচ্ছা-স্বপ্ন একজন মানুষকে তার ক্যারিয়ারে সফল করে।

উপস্থাপনা বলতে আমরা সংবাদ পাঠকেই কি বুঝি? একটা সময় সংবাদ উপস্থাপন ছিল সংবাদ পাঠ করাই। কিন্তু ১৯৯৯ সালে দেশে বেসরকারি অনেক চ্যানেলের যাত্রা শুরু হয়। সেখানে সংবাদ শুধু পাঠের বিষয় নয়। সংবাদ বুঝে তা দর্শকের কাছে সুন্দর করে পৌঁছানোই হলো সংবাদ পাঠ বা নিউজ প্রেজেন্টিং। বেসরকারি টিভি চ্যানেলগুলো তরুণ-তরুণীর স্বপ্নকে আরও জাগ্রত করেছে। তারা আগ্রহী হয়ে উঠছে এই পেশায় ক্যারিয়ার গড়তে।

এই পেশাটি খুবই প্রতিযোগিতামূলক। তাই নিজেকে যোগ্য করার মধ্য দিয়েই পেশাতে আসতে হয় এবং উপস্থাপক হিসেবে সুনাম কুড়ানো যায়। এই পেশা কেউ চাইলে পূর্ণকালীন করতে পারেন। কেউবা খণ্ডকালীন।

এই পেশায় কাজের সুযোগ অনেক। বাংলাদেশ টেলিভিশন, বেতার তো আছেই, সেই সঙ্গে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে কাজের ভালো সুযোগ করে দেয়। বর্তমানে দেশে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের সংখ্যা ৪৪ ও রেডিও ১০০টির কিছু কম। সব জায়গাতেই রয়েছে কাজের সুন্দর সুযোগ।

এই পেশায় আসতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্মান শ্রেণিতে পড়াকালীন যে কোনো তরুণ-তরুণী আসতে পারেন। সংবাদ উপস্থাপনার টেকনিক্যাল বিষয়গুলো জানতে হয়। জানতে হবে সমকালীন বিশ্ব সম্পর্কে। এই পেশায় কৌতূহলীরা খুব ভালো করেন। জানার আগ্রহ যাদের বেশি সংবাদের গভীরে তারাই যেতে পারেন। সংবাদ পাঠক-পাঠিকার বাচনভঙ্গি, উচ্চারণ, শিক্ষাগত যোগ্যতা, সাম্প্রতিক বিষয়ে ধারণা এবং উপস্থিত বুদ্ধি থাকা খুব জরুরি। উচ্চারণ ভালো হতে হবে। আঞ্চলিকতার টান থাকা যাবে না। আর খবর যেহেতু সরাসরি সম্প্রচার করা হয়, সেহেতু অনেক টেকনিক্যাল সমস্যা থাকতে পারে, অনেক ভুল হতে পারে- সংবাদ পাঠক-পাঠিকার উপস্থিত বুদ্ধি এ সময় জরুরি। মনে রাখতে হবে, হঠাৎ করে কোনো ব্রেকিং নিউজ হতে পারে, তখন স্ট্ক্রিপ্ট ছাড়াই সংবাদটি পড়তে হবে।

এই পেশায় আসার প্রস্তুতি হিসেবে সংবাদ উপস্থাপনার জন্য শুদ্ধ উচ্চারণে পারদর্শী হতে হবে। বাচনভঙ্গি সুন্দর হতে হবে।

সংবাদ উপস্থাপনার জন্য উপস্থিত বুদ্ধি থাকা, সময় ও দিবস সম্পর্কে জ্ঞান থাকা এবং সাধারণ জ্ঞানে পারদর্শী হতে হবে। একজন তরুণ-তরুণী যদি সাংবাদিকতার ছাত্র হন, তবে তার কাছে এই কাজটি করা খুবই সহজ। পুরো বিষয়টি যেহেতু সংবাদভিত্তিক তাই যিনি এই পেশায় আসতে চান তাকে আসলে সংবাদ জগতের মানুষই হতে হবে। শুধু পাঠক, এই ধারণা থেকে বের হয়ে একজন সংবাদকর্মী হতে হবে। তাহলে এই পেশায় ভালো করা যাবে।

এই পেশায় থাকে অনেক দায়িত্ব। খবর পড়ার আগে একজন সংবাদ পাঠক অথবা নিউজ প্রেজেন্টারের রিপোর্টিং থাকে ৩ ঘণ্টা আগে অর্থাৎ খবর শুরু হওয়ার তিন ঘণ্টা আগে তাদের অফিসে আসতে হয়। অফিসের কাজটুকু সম্পর্কে তার পুরো ধারণা থাকতে হবে। দায়িত্ববান থাকতে হবে। প্রচুর বই পড়ে জ্ঞানকে সমৃদ্ধ করতে হবে। কথাবার্তা, আচার-আচরণ এমন হতে হবে- যাতে দর্শক বুঝতে পারে। শুদ্ধ বাংলা উচ্চারণের পাশাপাশি ইংরেজি শব্দের ওপরও দক্ষতা থাকতে হবে।

শখের পেশা হলেও যদি আপনি দক্ষতায় নিজেকে ছাড়িয়ে যান, তাহলে এই পেশায় উপার্জনও ভালো। খুব লোভনীয় না হলেও আনন্দের সঙ্গে এই কাজ করে মনের মতো অর্থ উপার্জন করতে পারবেন খুব সহজেই।