কালের খেয়া

কালের খেয়া

পদাবলি

বর্ণদেবী

প্রকাশ: ১৫ মার্চ ২০১৯

মাসুদ মুস্তাফিজ

যদি পারো আরো জলমগ্ন হও বিস্তারজলে-

ভাবনার চিহ্ন ছিঁড়ে ছিঁড়ে আমার অনভ্যস্ত চোখ যুবতীমেঘে বিস্রস্ত আড়াল কোরো অন্যদিকে ভাষা ও প্রিয় বর্ণমালার প্রৌঢ়ত্বে অভিজ্ঞতার বেদনামর্ম ভাঁজে ভাঁজে আলো-আঁধারে উঁকি দিচ্ছে বিবিধ চিত্রকল্পে অথচ আমাদের ভাবনাগুলো যাত্রা করতে চেয়েছিলো ভবিষ্যৎ হয়ে, মেঘ-বৃষ্টি-রোদ-ঝড় উপেক্ষা করে চেতনাশিল্পিত বিশালতার বাতাসে বর্ণে আগুনের ধ্বনি হয়ে আমরা তো ভাষার মানব-বাংলা শব্দের আর্তি-আশা-আকাঙ্ক্ষার বৃক্ষদান-শব্দকলি, কতোটা নিশ্বাস নিলে বেঁচে থাকা যায়, ঈশ্বরের অতলান্তিক চৌকাঠ পেরিয়ে অভিমানী কৃষ্ণচূড়া ভালোবাসায়

জন্মমৃত্যু স্রোতে মায়ের সাদা শাড়ি পরে আবারো মিছিলে যাবো একদিন মেঘমালার শুভ্র কাফনমোড়া ঋণ আঠারো কোটি নদীর সোহাগীজলে শোধ দেবো তারপর বাংলার দুঃখিনী মায়ের দাবিকে প্রজন্মরঙিন স্বপ্নে হিরণ্যহূদে গেঁথে রাখবো সাহসী যুগান্তরে, রফিক জব্বার বরকতের বর্ণখচিত হাড়ের শ্বাস কালবেলার সূর্যোদয়ের রক্তিম বাংলাদেশে জেগে থাকবে ভোরের কাকডাকা সোনালি আকাশে

আজ শুধু বকুল পলাশ ও রক্তজবার বিশ্বাসী দীপ জ্বেলে রাত সাদা করছি এবং প্রতীক্ষারোদে বোধগুলো শুকিয়ে নিচ্ছি...