কালের খেয়া

কালের খেয়া

পদাবলি

সুনীল সন্ন্যাসী - উনিশ

প্রকাশ: ১৫ মার্চ ২০১৯

মুহম্মদ নুরুল হুদা

ফুটে আছে তারায় তারায়। ঝরে যেতে যেতে ফুটে ওঠে নহলি ডগায়। ঘুমেল কুড়ির বুকে দল হয়ে ফুল হয়ে চোখ মেলে সন্ধ্যামালতী। ধরো, গৃহস্থের পঞ্চম তলায়, সরু এক বারান্দায়, ব্রহ্মাণ্ডের মতো ছোট এক টব। সেই টবে পাখি সব করে কলরব। আলো নিভে গেলে ওরা উড়ে যায় অধরা ডানায়। মানুষ দাঁড়িয়ে থাকে; মানুষের দিকে ওরা ফিরে ফিরে চায়।

তাকায় না কেবল মানুষ। নতুন ফুলের খোঁজে ঘোরে- ফেরে পুরনো মানুষ। তখন ফুলেরা হাসে। তখন পাখিরা হাসে। ওরা বারবার ফিরে আসে পাখি হয়ে ফুল হয়ে আলোর ডানায়। মানুষেরা সব দেখে, সহজে বোঝে না। নতুন পুরনো হয়ে পুরনো খোঁজে না। যেই ফুল সেই পাখি সেই তো মানুষ। এটা নিয়ে সেটা নিয়ে মানুষের শুধু উসখুস।

কলিকাল নয় সত্যকাল। সুনীল সন্ন্যাসী দেখে ঘুরে ঘুরে একাল সেকাল। দেখে আর হাসে। সব কালে আছে মহাকাল। মহাকালে মহাজগতের পাখি উড়ে উড়ে আসে।