কালের খেয়া

কালের খেয়া


পদাবলি

শহরের নকশা

প্রকাশ: ০৮ নভেম্বর ২০১৯      

আতাতুর্ক কামাল পাশা

শহরে ঘৃণার হাড্ডিগুলো
নীলকর ভুল করে ফেলে রেখে গেছে
বাদল ব্যদন পেয়ে সতীদাহ সীতা
গন্ডোলার বৈঠা বেয়ে এসে
হালখাতা খুলে দেয় প্রতি ভোরে কাপ্পুচিনো কাপে

অভিজাত কেএফসির রয়েল বেঙ্গল
বিশ্ববিদ্যা হূষ্টপুষ্ট আঁতেলের খড়িমাটি হাতে

ভূভাগে কি কোথা নেই একফোটা কাফকার শেষ ভালোবাসা
হর্ষবর্ধনের ঘোড়াগুলো
ভুলে গেছে সবুজে অবুঝ ঘাস চিবানো জাবর

এ মাটিতে ঘাস ছিল এ মাটি শ্যামল ছিল গতকালো সাঁঝে
বেগম রোকেয়া যত্নে কুলা দিয়ে চাল থেকে আঁকড়া বিচালি
স্নেহের পরশ নিয়ে দিতো ফেলে নিচে
তারপর নৈশভোজ রাতের কাকলি
নিয়ে সবে বসে যেত পূর্ণিমার রাতে

আজো সে নদীর বুকে, বাসন্তি চেলির ছোঁয়া নিয়ে
জেগে থাকে ভৈরব কিংখাবে
থাকে শুধু সরস্বতী ধূপের আড়ালে
নগরের জনারণ্যে বসে না আসর কোনো
চন্দ্রাবতী পদাবলি পূর্ণিমার রাতে