পরমানন্দের কাছে নত করে রাখি মাথা!
ভুলে চুকে থাকি আর সব।

বাম ও ডানের কথাগুলো উবে যায়
যেন বা বুদবুদের তাড়নায় জলের অতল হতে
সবেগে বেরিয়ে আসা বায়ুর মিলন।

দারুণ ধ্যানের মাঝে ঊর্ধ্বে হয়ে থাকি স্থির
সুষুল্ফ্নায় বেঁধে রাখি চঞ্চল পীড়ন
পঞ্চমাত্রা হতে আহরিত দেহের ভেতর
দৈব অথবা ভৌতিক আলোড়ন চলে
অতি সাধারণ হয়ে হাঁটি চিন্ময়ী বিভায়।

এসব ক্রিয়ার সঙ্গে পরস্পরের চেতনা ভেঙে
নিজেকে আলাদা করে রাখি
জড়জাগতিক আঁধারে ভাসা আলোর ন্যায়।

আলোর আনন্দে ভেসে ভেসে যাই
পরমানন্দের কাছে নত করে রাখি মাথা!

মন্তব্য করুন